বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনা টেস্ট থেকে বাঁচতে দৌড়, অসচেতনতার ভয়াবহ উদাহরণ বিহারে
ছবি সৌজন্যে টুইটার ভিডিয়ো
ছবি সৌজন্যে টুইটার ভিডিয়ো

করোনা টেস্ট থেকে বাঁচতে দৌড়, অসচেতনতার ভয়াবহ উদাহরণ বিহারে

  • করোনা টেস্ট না করাতে চেয়ে প্রচুর মানুষ রেল স্টেশন থেকে থেকে দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন।

সংক্রমণ রুখতে আরও বেশ করে নমুনা পরীক্ষার নিদান দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। কেন্দ্রের তরফেও রাজ্যগুলিকে এই সংক্রান্ত পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বিশেষত ভ্রমণরত মানুষদের করোনা পরীক্ষার উপর জোর দেওয়া হচ্ছে। এই আবহে করোনার দ্বিতীয় প্রবাহে নাজেহাল দেশ। এসবের মাঝেই এক অদ্ভুত দৃশ্য দেখা গেল বিহারের বক্সার রেল স্টেশনে। যে ভিডিয়ো প্রকাশ হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে প্রচুর মানুষ রেল স্টেশন থেকে থেকে দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া এক ভিডিয়োতে দেখা যায়, করোনা টেস্টের ভয়ে দৌড়াচ্ছেব রেল যাত্রীরা। এমন ছবি দেখে অনেকে বিশেষজ্ঞই হতবাক। উল্লেখ্য, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় পদক্ষেপ করছেন সেরাজ্যের মুখ্য়মন্ত্রী। কয়েকদিন আগেই বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার জানিয়েছিলেন, বিহারের প্রতিটি রেল স্টেশনে কোভিড টেস্ট ক্য়াম্প করা হবে। সেই মতো বক্সার রেল স্টেশনেও ক্যাম্প করা হয়েছিল। সেখানে স্বাস্থ্য কর্মীদের তরফে রেল যাত্রীদের কাছে আবেদন করা হচ্ছে, স্টেশন থেকে বেরোনোর আগে যেন তাঁরা করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেন। করোনা টেস্ট করার ভয়েই স্টেশন থেকে পালাচ্ছেন তাঁরা।

রেলের এক আধিকারিক জানান, চেষ্টা থাকলেও সচেতনতার অভাবে বিহারের বিভিন্ন রেল স্টেশনে এই দৃশ্য় এখন দৈনিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কর্তৃপক্ষের আবেদন শুনছেন না যাত্রীরা। পাশাপাশি স্টেশনগুলিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুলিশকর্মী নিযুক্ত নেই।

এদিকে ঘটনা প্রসঙ্গে বক্সারের এক কাউন্সিলর বলেন, 'আমরা রেল যাত্রীদের আটকানোর চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু তখন তারা তর্ক করতে শুরু করে দিল। ওই ঘটনার সময় রেলের কোনও পুলিশ ছিল না ঘটনাস্থলে। তারপর একজন মহিলা পুলিশ কর্মী সেখানে পৌঁছলেও তাঁর একার পক্ষে পুরো বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি।' 

 

বন্ধ করুন