বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > হ্যাকিংয়ের শিকার এয়ার ইন্ডিয়া, ৪৫ লক্ষ যাত্রীর ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস
বড় ধরনের সাইবার জালিয়াতির শিকার এয়ার ইন্ডিয়া, যাত্রীদের তথ্য চুরির আশঙ্কা
বড় ধরনের সাইবার জালিয়াতির শিকার এয়ার ইন্ডিয়া, যাত্রীদের তথ্য চুরির আশঙ্কা

হ্যাকিংয়ের শিকার এয়ার ইন্ডিয়া, ৪৫ লক্ষ যাত্রীর ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস

  • এই তথ্যগুলোর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হল, যাত্রীদের নাম, টিকিটের তথ্য, পাসপোর্টের তথ্য, ক্রেডিট কার্ডের তথ্য, স্টার অ্যালায়েন্স ও এয়ার ইন্ডিয়ার ঘন ঘন উড়ানের তথ্য-‌সহ বিশদ বিবরণ। তবে কোনও পাসওয়ার্ডের ডেটা প্রভাবিত হয়নি বলে জানা গিয়েছে। আরও জানানো হয়েছে যে, এই ঘটনায় সারা বিশ্বের প্রায় ৪৫ লক্ষ যাত্রীর তথ্য ফাঁস হয়েছে। 

বড় ধরনের সাইবার জালিয়াতির শিকার হল এয়ার ইন্ডিয়া। রাষ্ট্রায়ত্ত এই বিমান সংস্থার ৪৫ লক্ষ যাত্রীদের তথ্য ফাঁস হয়েছে। হাতিয়ে নেওয়া তথ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে, যাত্রীদের ক্রেডিট কার্ড, পাসপোর্টের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, ফোন নম্বর-‌সহ ব্যক্তিগত তথ্য।

রাষ্ট্রায়ত্ত এই বিমান সংস্থার সার্ভার হ্যাক করার অভিযোগ উঠল সাইবার জালিয়াতদের বিরুদ্ধে। সার্ভার থেকে বিমানযাত্রীদের প্রচুর তথ্য চুরি যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। নিঃসন্দেহ এই ঘটনায় বিমানযাত্রীদের তথ্যের সুরক্ষা অনিশ্চিত হয়ে পড়ল। স্বাভাবিকভাবেই লক্ষ লক্ষ বিমানযাত্রীদের কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। যাদের তথ্য চুরি হয়েছে, তাদের মেসেজ করে জানিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া। 

 সাইবার অপরাধীরা এয়ার ইন্ডিয়ার সার্ভারগুলো হ্যাক করে বিমানের যাত্রী পরিষেবা ব্যবস্থায় ব্যবহৃত যাত্রীদের ক্রেডিট কার্ড, পাসপোর্টের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়েছে। কাদের তথ্য চুরি হয়েছে, সেই সংক্রান্ত তথ্য এয়ার ইন্ডিয়া পেয়েছে ২৫ মার্চ থেকে ৫ এপ্রিলের মধ্যে। 

 ২০১১ সালের ২৬ অগাস্ট থেকে শুরু করে চলতি বছরের ৩ ফেব্রয়ারি পর্যন্ত মোট ১১ বছরের তথ্য চুরির অভিযোগ উঠেছে। এই তথ্যগুলোর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হল, যাত্রীদের নাম, জন্ম তারিখ, টিকিটের তথ্য, পাসপোর্টের তথ্য, ক্রেডিট কার্ডের তথ্য, স্টার অ্যালায়েন্স ও এয়ার ইন্ডিয়ার ঘন ঘন উড়ানের তথ্য-‌সহ বিশদ বিবরণ। তবে কোনও পাসওয়ার্ডের ডেটা প্রভাবিত হয়নি বলে জানা গিয়েছে। আরও জানানো হয়েছে যে, এই ঘটনায় সারা বিশ্বের প্রায় ৪৫ লক্ষ মানুষের ডেটা লিক হয়েছে। চলতি বছরে ফেব্রুয়ারিতে এই সাইবার হানা হয়েছে। প্রভাবিত হয়েছে এয়ার ইন্ডিয়ার সার্ভিস সিস্টেম প্রভাইডার সিটা যেটি জেনিভায় স্থিত। সংস্থা জানিয়েছে যে তারা ১৯ মার্চ তাদের ওয়েবসাইটে এই নিয়ে প্রাথমিক তথ্য দিয়েছিল। 

তবে এয়ার ইন্ডিয়া জানিয়েছে, যাত্রীদের ক্রেডিট কার্ডের তথ্যের ক্ষেত্রে, সিভিভি বা সিভিসি নম্বরগুলি সংস্থার ডেটা প্রসেসরে রাখা হয় না। তাছাড়া সার্ভারের সমস্ত পাসওয়ার্ড পাল্টে ফেলা হয়েছে। এছাড়াও সার্ভারগুলো সুরক্ষিত করার পর আর কোনও অস্বাভাবিকত্ব লক্ষ্য করা যায়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। হ্যাক হওয়া সার্ভারগুলো সুরক্ষিত করা হয়েছে। তথ্য সুরক্ষার ব্যাপারে বিশেষজ্ঞদের সাহায্য নেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও ক্রেডিট কার্ড জারি করা ব্যাঙ্কগুলির সঙ্গেও যোগাযোগ করা হয়েছে।

 

বন্ধ করুন