বাড়ি > ঘরে বাইরে > PM Cares-এর অনুদান NDRF-এ স্থানান্তরের দাবির মামলায় কেন্দ্রকে সুপ্রিম নোটিস
আগামী ৮ জুলাই ফের এই মামলার শুনানি হবে।
আগামী ৮ জুলাই ফের এই মামলার শুনানি হবে।

PM Cares-এর অনুদান NDRF-এ স্থানান্তরের দাবির মামলায় কেন্দ্রকে সুপ্রিম নোটিস

  • DM Act-এর ১১ নম্বর ধারা সারা দেশে বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য একটি বাধ্যতামূলক জাতীয় পরিকল্পনা প্রণয়নের কথা বলে। কিন্তু বর্তমানে কোভিড-১৯ -এর মতো বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য এমন কোনও জাতীয় পরিকল্পনা নেই।

PM Cares তহবিলে জমা পড়া অর্থ বিপর্যয় মোকাবিলা ত্রাণ তহবিলে পাঠানোর আবেদন করে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এক এনজিও-র দাখিল করা মামলার ভিত্তিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে নোটিস পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। 

মামলায় দাবি করা হয়েছে যে, করোনা সংক্রমণের মোকাবিলায় গড়ে ওঠা প্রাইম মিনিস্টারস সিটিজেন অ্যাসিসটেন্স অ্যান্ড রিলিফ ইন এমারজেন্সি সিচুয়েশনস (PM Cares) তহবিলে যে অনুদান জমা পড়েছে, সে সবই জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিল (NDRF)-এ স্থানান্তরিত করতে হবে।

আদালতে জমা দেওয়া আবেদনে বলা হয়েছে, PM Cares তহবিল ২০০৫ সালের DM Act-এর আইনি নির্দেশ লঙ্ঘন করা হয়েছে। আইনে স্পষ্ট ভাবে বলা হয়েছে যে, বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য কোনও ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের অনুদান অবশ্যই NDRF-এর খাতায় যাবে।

পিটিশনে বলা হয়েছে, বর্তমানে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সঙ্গে লড়ার জন্য জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে ব্যবহার করা হচ্ছে না। বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের আওতা ও পরিধির বাইরে গিয়ে পাব্লিক চ্যারিটেবল ট্রাস্ট হিসেবে PM Cares তহবিল গড়ে তুলে, স্পষ্ট বিধিবদ্ধ বিধানকে লঙ্ঘন করে, অতিমারীর জন্য প্রাপ্ত অনুদান এই তহবিলেই পাঠানো উচিত।

আবেদনে বলা হয়েছে, বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের ১১ নম্বর ধারা সারা দেশে বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য একটি বাধ্যতামূলক জাতীয় পরিকল্পনা প্রণয়নের কথা বলে। কিন্তু বর্তমানে কোভিড-১৯ -এর মতো বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য এমন কোনও জাতীয় পরিকল্পনা নেই। উল্লেখ্য, এই অতিমারীকেও ‘বিপর্যয়’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। DM Act-এর অধীনে একে রাখার জন্য একাধিক বিজ্ঞপ্তিও জারি করা হয়েছে।

সলিসিটর জেনারেল বিরুদ্ধ যুক্তি পেশ করতে চাইলেও, বিচারপতি অশোক ভূষণের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ কেন্দ্রের কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া তলব করেছে। বিচারপতিদের বেঞ্চের তরফে, কেন্দ্রের জবাবের জন্য চার সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে। 

পাব্লিক চ্যারিটেবল ট্রাস্ট হিসেবে ২৮ মার্চ PM Cares তহবিল গড়ে তোলা হয়। যার প্রাথমিক লক্ষ্য হল, কোভিড-১৯ -এর মতো কোনও আপদকালীন বা সঙ্কটজক পরিস্থিতি মোকাবিলা করা।

আবেদনকারী আদালতকে জানিয়েছেন, ১৪ মার্চ, অর্থাৎ PM Cares তহবিল গড়ে তোলার ঠিক দু’সপ্তাহ আগে কেন্দ্রের তরফে রাজ্য সরকারগুলিকে জানানো হয় যে, রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিলের (SDRF) অধীনে সংক্রমণ সংক্রান্ত বিষয়ে সহায়তার জন্য, কোভিড-১৯ কে বিপর্যয় হিসেবেই চিহ্নিত করা হবে। 

মামলাকারীর দাবি, SDRF ছাড়াও কোভিড-১৯ অতিমারী মোকাবিলায় ও সহায়তা প্রদানে NDRF-কেও যুক্ত করা উচিত ছিল কেন্দ্রীয় সরকারের। কিন্তু  PM Cares তহবিল গড়ে তোলার উদ্দেশে তখন তা করা হয়নি।

মামলায় আর একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। তা হল PM Cares কম্পট্রোলার ও অডিটর জেনারেলের অডিটের আওতায় আসে না, এমনকি, ২৯ মে-র একটি RTI-এর প্রত্যুত্তরে স্পষ্ট যে PM Cares ২০০৫-এর RTI অ্যাক্টের আওতাধীনও নয়। আবেদনে বলা হয়েছে যে, PM Cares তহবিলের অর্থের ব্যবহার সম্পর্কে তথ্য প্রকাশ করা থেকেও কেন্দ্রীয় সরকার বিরত থাকছে।

আগামী ৮ জুলাই ফের এই মামলার শুনানি হবে। বিচারপতি অশোক ভূষণের পাশাপাশি এই বেঞ্চে রয়েছেন, বিচারপতি সঞ্জয় কিষণ ও বিচারপতি এমআর শাহ।  

বন্ধ করুন