বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আয়ুষ্মান ভারত ডিজিটাল মিশন লঞ্চ করলেন মোদী, প্রকল্পের সুবিধা সম্পর্কে জানুন বিশদ
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (HT_PRINT)
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (HT_PRINT)

আয়ুষ্মান ভারত ডিজিটাল মিশন লঞ্চ করলেন মোদী, প্রকল্পের সুবিধা সম্পর্কে জানুন বিশদ

  • চালু হচ্ছে ডিজিটাল হেলথ কার্ড। এই প্রকল্পে সকল ভারতবাসীকে হেলথ আইডি দেওয়া হবে। 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সোমবার এক ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে আয়ুষ্মান ভারত ডিজিটাল মিশন চালু করলেন। এদিন প্রকল্পের লঞ্চ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্যও। এর আগে স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লায় ভাষণ রাখার সময় এই প্রকল্পের বিষয়ে জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এই স্কিমের মাধ্যমে প্রত্যেক নাগরিকের স্বাস্থ্য পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। এটি তাঁদের হেলথ অ্যাকাউন্ট হিসেবে চিহ্নিত হবে। এই তথ্য স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরিষেবা দেওয়ার সময় কাজে লাগবে পরিষেবা প্রদানকারীদের। পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবায় নিযুক্ত পেশাজীবীদের রেজিস্ট্রি এবং স্বাস্থ্যসেবা সুবিধা রেজিস্ট্রিও চালু করা হবে। এই প্রকল্পের লক্ষ্য, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমেই সব ভারতীয়দের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পেয়ে যাওয়া যাবে বা সংরক্ষিত রাখা। হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রেও জটিলতা কমবে।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ দিন। গত সাতবছর ধরে দেশের স্বাস্থ্য সুবিধা জোরদার করার অভিযান চালানো হচ্ছে। আজ সেই অভিযানের একটি নতুন পর্ব শুরু হল। এটি একটি অসাধারণ পর্ব হতে চলেছে।’ মোদী আরও বলেন, ‘দুঃস্থ ও মধ্যবিত্তের চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্যা দূর করতে বিরাট ভূমিকা নেবে আয়ুষ্মান ভারত ডিজিটাল মিশন। প্রযুক্তির মাধ্যমে সারা দেশে হাসতাপাল ও রোগীদের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করবে এবং আরও মজবুত প্রযুক্তিগত প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে এই সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।’

মোদী এদিন আরও বলেন, ‘তিন বছর আগে পণ্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায়ের জন্মবার্ষিকীতে, আয়ুষ্মান ভারত যোজনা কার্যকর করা হয়েছিল। আয়ুষ্মান ভারতে বিনামূল্যে চিকিৎসার সুবিধা মেলায় গরিবদের সুবিধা হয়েছে। স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে বদলে দিয়েছে এই প্রকল্প। চিকিৎসা নিয়ে গরিব-মধ্যবিত্তদের যাবতীয় চিন্তা দূর হয়েছে। তাঁদের সুবিধার কথা মাথাই রেখেই এবার চালু হচ্ছে ডিজিটাল হেলথ কার্ড। সবাই হেলথ আইডি পাবেন। ওই আইডির মাধ্যমেই তাঁর যাবতীয় রেকর্ড সরকারের কাছে নথিভুক্ত থাকবে।’

 

বন্ধ করুন