বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চালু হল NCMC পরিষেবা, একই কার্ড সোয়াইপ করে চড়া যাবে মেট্রো-বাস-লোকাল ট্রেনে
NCMC পরিষেবায় একটি মাত্র কার্ড ব্যবহার করে দিল্লি মেট্রোর সমস্ত রুট ছাড়াও একাধিক গণপরিবহণ ব্যবস্থায় যাতায়াতের সুবিধা পাওয়া যাবে।
NCMC পরিষেবায় একটি মাত্র কার্ড ব্যবহার করে দিল্লি মেট্রোর সমস্ত রুট ছাড়াও একাধিক গণপরিবহণ ব্যবস্থায় যাতায়াতের সুবিধা পাওয়া যাবে।

চালু হল NCMC পরিষেবা, একই কার্ড সোয়াইপ করে চড়া যাবে মেট্রো-বাস-লোকাল ট্রেনে

  • NCMC পরিষেবায় একটি মাত্র কার্ড ব্যবহার করে দিল্লি মেট্রোর সমস্ত রুট ছাড়াও একাধিক গণপরিবহণ ব্যবস্থায় যাতায়াতের সুবিধা পাওয়া যাবে।

দিল্লি মেট্রো রেলের এয়ারপোর্ট এক্সপ্রেস লাইনে দেশের প্রথম ন্যাশনাল কমন মোবিলিটি কার্ড (NCMC) পরিষেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

এই কার্ড প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের ‘এক দেশ এক কার্ড’ উদ্যোগের আওতায় পড়ছে। NCMC পরিষেবায় একটি মাত্র কার্ড ব্যবহার করে দিল্লি মেট্রোর সমস্ত রুট ছাড়াও একাধিক গণপরিবহণ ব্যবস্থায় যাতায়াতের সুবিধা পাওয়া যাবে।

NCMC প্রকল্পটি আদতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক (RBI) গঠিত নন্দন নিলেকানি কমিটির মস্তিষ্কপ্রসূত। প্রাক্তন UIAI চেয়ারপার্সন নিলেকানির নেতৃত্বে ৫ সদস্যের কমিটি বেশ কিছু প্রস্তাব পেশ করে, যার অন্যতম ছিল নগদের পরিবর্তে নাগরিকদের প্রতি সরকারি পেমেন্টের ক্ষেত্রে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহারের চল।

NCMC সম্পর্কে জরুরি তথ্য, যা জানা জরুরি:

১) NCMC পরিষেবায় RuPay ডেবিট কার্ড মেট্রো ভ্রমণের ক্ষেত্রে সোয়াইপ করা যাবে। উল্লেখ্য, গত ১৮ মাসে এসবিআই, ইউকো ব্যাঙ্ক, কানাড়া ব্যাঙ্ক, পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক-সহ মোট ২৩টি ভারতীয় ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের এই কার্ড ইস্যু করেছে। দিল্লি মেট্রোর (DMRC) মুখপাত্র জানিয়েছেন, ২০২২ সালের মধ্যে সমগ্র দিল্লি মেট্রো নেটওয়ার্কে NCMC পরিষেবা চালু হয়ে যাবে।

২) NCMC একটি স্বয়ংক্রিয় ভাড়া আদায় ব্যবস্থা। এই পরিষেবা যে কোনও স্মার্টফোনকে অন্তর্বর্তী ব্যবহারযোগ্য পরিবহণ কার্ডে রূপান্তরিত করতে সক্ষম, যার মাধ্যমে মেট্রো, বাস ও লোকাল ট্রেনে ভ্রমণ করতে পারবেন যাত্রীরা। 

৩) NCMC পরিষেবা দিল্লি মেট্রোর সমগ্র ৪০০ কিমি যাত্রাপথে ব্যবহার করা যাবে।

৪) এই পরিষেবায় স্মার্টফোনের সাহায্যে স্বয়ংক্রিয় ভাড়া আদায় ব্যবস্থায় (AFC) মেট্রো স্টেশনে প্রবেশ ও প্রস্থান করা যাবে। দিল্লি মেট্রোর আগামী ফেজ-৪ প্রকল্পে AFC ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভাবে NCMC পরিষেবা নির্ভর হবে। শুধু তাই নয়, ভারতের যে কোনও শহরেও NCMC ব্যবহারযোগ্য হবে।

৫) AFC ব্যবস্থা সহায়ক মেট্রো স্টেশনের বিশেষ গেট তৈরির জন্য ভারত ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড সংস্থাকে বরাত দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কালক্রমে দেশের সব মেট্রো স্টেশনেই বসতে চলেছে AFC গেট। 

৬) নিলেকানি কমিটির প্রতাব অনুযায়ী, NCMC পরিষেবায় দুই রকম লেনদেন ব্যবস্থা থাকবে। এর একটি সাধারণ ডেবিট কার্ড, যা এটিএম (ATM) কার্ড হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। দ্বিতীয়টি স্থানীয় ওয়ালেট, যা স্পর্শহীন লেনদেনে (contactless payments) সহায়ক হয়। 

৭) যাত্রীদের সুবিধায় কেন্দ্রীয় অর্থনৈতিক পরিষেবা দফতর সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষকে NCMC সহায়ক ডেবিট কার্ড তৈরির নির্দেশ দিয়েছে। 

বন্ধ করুন