প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রে মোদী (ছবি সৌজন্য এএনআই)
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রে মোদী (ছবি সৌজন্য এএনআই)

'পারবেন না', মোদীর সোশ্যাল মিডিয়া টুইটের পর তোলপাড় নেট দুনিয়া, ছড়াছড়ি মিমের

  • অনেকে তো জানিয়েই দেন, মোদী না থাকলে তাঁরাও সোশ্যাল মিডিয়া আর ব্যবহার করবেন না। এমনকী #NoSir #NoModiNoTwitter ট্রেন্ড হতে থাকে।

বরাবরই সোশ্যাল মিডিয়ায় হিট তিনি। গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন সোশ্যাল মিডিয়ায় কেন্দ্রকে আক্রমণ শানাতেন। আবার প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসে সরকারের বিভিন্ন 'সাফল্য' তুলে ধরেছেন। দেশবাসীর উদ্দেশে দিয়েছেন নানা বার্তা। আর তিনিই কিনা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সন্ন্যাস নিতে চলেছেন? তা নিয়েই তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া।

া।

সোমবার রাতে একটি টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রে মোদী। লেখেন, 'আগামী রবিবার থেকে ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ও ইউটিউবে নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেব ভাবছি। আপনাদের সবাইকে (এই বিষয়ে) জানাব।'



আরও পড়ুন : সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ছেন মোদী? টুইটে জল্পনা

মোদীর সেই টুইটের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো কমেন্টের ছড়াছড়ি পড়ে যায়। কেউ বলেন, '(সোশ্যাল মিডিয়া) ছেড়ে যাবেন না।' অনেকে মতে, ট্রোলের কারণে সোশ্যাল মিডিয়া ত্যাগ করছেন মোদী। তাঁরা আবার পরামর্শও দেন। অনেকে তো জানিয়েই দেন, মোদী না থাকলে তাঁরাও সোশ্যাল মিডিয়া আর ব্যবহার করবেন না। এমনকী #NoSir #NoModiNoTwitter ট্রেন্ড হতে থাকে।

একটি অংশের দাবি, মোদী যখন সিদ্ধান্ত তখন অনেক ভেবেচিন্তেই নিয়েছেন। টুইটার, ফেসবুকের মতো বিদেশি সংস্থার পরিবর্তে দেশীয় সোশ্যাল মিডিয়া চালুর প্রথম ধাপ এটি। কয়েকজন বিজেপি নেতারও কথায় সেই আভাসও মিলেছে।

অনেকেই আবার মোদীকে খোঁচা দিতেও ছাড়েননি। কয়েকজন বলেন, 'হবে না। আমি নিজেই তিন-চারবার চেষ্টা করেছি।' কেউ কেউ আবার মোদী সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ার বিজেপি সমর্থকদের কী অবস্থা হবে, তা নিয়েও রসিকতা করেছেন।

বন্ধ করুন