হোলির শুভেচ্ছা জানালেন নরেন্দ্র মোদী (ফাইল ছবি, রয়টার্স)
হোলির শুভেচ্ছা জানালেন নরেন্দ্র মোদী (ফাইল ছবি, রয়টার্স)

করোনা সতর্কতায় হোলির উত্সবে নেই, দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

  • চলতি বছর হোলির কোনও অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন মোদী। কারণ করোনাভাইরাস আতঙ্কে যে কোনও জমায়েত এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই দেশবাসীর মধ্যে সতর্কতা ছড়িয়ে দিতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

রঙের উত্সবে এবছর শামিল নন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। হোলি না খেললেও দেশবাসীর সঙ্গে হোলির শুভেচ্ছা বিনিময় করে নিলেন প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদীর পাশাপাশি হোলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু ।

এদিন হিন্দিতে মোদী লেখেন, 'রঙ,উল্লাস এবং আনন্দের উত্সব হোলির অনেক শুভেচ্ছা আপনাদের। এই উত্সব যেন সব দেশবাসীর জীবনে একরাশ খুশি নিয়ে আসে'।


গত সপ্তাহেই মোদী জানিয়েছিলেন চলতি বছর দোলের কোনও অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন না তিনি। কারণ দেশে বাড়ছে করোনাভাইরাস আতঙ্ক। এই পরিস্থিতিতে যে কোনও জমায়েত এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই দেশবাসীর মধ্যে সতর্কতা ছড়িয়ে দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেন মোদী।

সেকথা টুইট করেও জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি লিখেছিলেন, 'COVID-19 নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে বিশ্বজুড়ে বিশেষজ্ঞরা জমায়েত এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। তাই এই বছর আমি কোনও হোলি মিলন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।'


রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ লেখেন, 'সবাইকে হোলির অনেক শুভেচ্ছা। রঙের উত্সব হোলি পালন করা হয় বসন্তের উদযাপনে। আশা করি এই উত্সব সবার জীবনে শান্তি, আনন্দ ও সমৃদ্ধি নিয়ে আসবে'।

উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু হোলির উষ্ণ শুভেচ্ছা বিনিময় করে লেখেন, 'এই হোলিতে আসুন আমরা সবাই বন্ধুত্বের বন্ধনটা আরও মজবুত করি, যে মৈত্রী আমাজের সমাজকে একসঙ্গে বেঁধে রাখে। আসুন এই উত্সব ভেঙে দিক সেই সব বন্ধন যা আমাদের আলাদা করে রাখে, আমরা একত্রিত হই সমৃদ্ধি, শান্তি, উন্নয়ন, সংহতি এবং আনন্দের লক্ষ্য নিয়ে'।

বন্ধ করুন