অধীর রঞ্জন চৌধুরী তাঁর ভাষণে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে টিপ্পনি কাটেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বৃহস্পতিবার সংসদে। (PTI)
অধীর রঞ্জন চৌধুরী তাঁর ভাষণে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে টিপ্পনি কাটেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বৃহস্পতিবার সংসদে। (PTI)

‘ফিট ইন্ডিয়া’ প্রকল্পের সার্থক প্রচারক অধীর, কংগ্রেসকে ঠেস দিয়ে টিপ্পনি মোদীর

  • অধীরজি সরকারের ‘ফিট ইন্ডিয়া’ প্রকল্প এত সুন্দর ভাবে প্রচার করেছেন যে ওঁকে ধন্যবাদ জানাই। ভাষণ দেওয়ার সময় উনি ব্যায়ামও করেন।

অধীর রঞ্জন চৌধুরীজিকে দেখলে ও তাঁর কথা শুনলে আমি কিরণ রিজিজুজিকে অভিনন্দন জানাই। অধীরজি সরকারের ‘ফিট ইন্ডিয়া’ প্রকল্প এত সুন্দর ভাবে প্রচার করেছেন যে ওঁকে ধন্যবাদ জানাই। ভাষণ দেওয়ার সময় উনি ব্যায়ামও করেন। বৃহস্পতিবার সংসদে জবাবী ভাষণে কংগ্রেস সংসদীয় দলনেতাকে এ ভাবেই বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এ দিন সংসদের বাজেট অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির প্রতি ধন্যবাদ জানাতে প্রধানমন্ত্রী জবাবী ভাষণ দিতে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে অধীরের নেতৃত্বে বাধা দিতে থাকে কংগ্রেস। মোদী কথা বলার আগে তাঁরা সমস্বরে ‘মহাত্মা গান্ধী অমর রহে’ স্লোগান দিতে থাকেন। স্লোগান শেষ হওয়া অবধি অপেক্ষা করে প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেন, ‘ব্যস! হয়ে গেল?'



আরও পড়ুন: পাকে হিন্দু দমনের নজির দিতে ২ বাঙালি স্বাধীনতা সংগ্রামীর পরিণতি মনে করালেন মোদী


এতে অধীর বলে ওঠেন, ‘এ তো সবে ট্রেলার।’

জবাবে কংগ্রেস সাংসদদের উদ্দেশে নমো বলেন, ‘আপনাদের কাছে মহাত্মা গান্ধী ট্রেলার হতে পারেন কিন্তু আমাদের চোখে মহাত্মা গান্ধীই জীবন।’

উল্লেখ্য, দেশবাসীর প্রাত্যহিক জীবনে খেলাধুলোকে অন্তর্গত করার লক্ষ্যে ‘ফিট ইন্ডিয়া’ প্রকল্প চালু করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই উদ্যোগে নেতৃত্ব দিয়েছেন ক্রীড়ামন্ত্রী কিরণ রিজিজু স্বয়ং।

বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রের এনডিএ সরকারের বিরুদ্ধে সিএএ, এনআরসি ও এনপিআর বিরোধী আক্রমণে বরাবরই অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছেন অধীর রঞ্জন। বিজেপি নেতাদের ‘ছদ্ম জাতীয়তাবাদী’ তকমা দিয়ে তিনি কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলিকে মহাত্মা গান্ধীর নীতির পরিপন্থী বলে অভিযোগ জানিয়েছেন।

এ দিনও প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের মাঝে বার বার তিনি বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। তারই প্রেক্ষিতে পালটা কটাক্ষ করেন মোদী।



বন্ধ করুন