বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > JNU-এর জঙ্গল থেকে উদ্ধার পচা-গলা ঝুলন্ত দেহ, খুন নাকি আত্মহত্যা? তদন্তে পুলিশ
জেএনইউ (ফাইল ছবি)

JNU-এর জঙ্গল থেকে উদ্ধার পচা-গলা ঝুলন্ত দেহ, খুন নাকি আত্মহত্যা? তদন্তে পুলিশ

  • পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল সন্ধে সাড়ে ছ'টা নাগাদ জঙ্গলে ঝুলন্ত পচাগলা মৃতদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা প্রথমে পুলিশকে ফোন করেন। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

ফের বিতর্কে জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়। গতকাল সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দিল্লি ক্যাম্পাসের বাইরে একটি জঙ্গল থেকে এক ব্যক্তির পচা গলা ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃত ব্যক্তির পরিচয় এখনও জানা যায়নি। তার পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ওই ব্যক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মী ছিলেন? নাকি পড়ুয়া? নাকি অন্য কেউ? পুলিশ তা জানার চেষ্টা করছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল সন্ধে সাড়ে ছ'টা নাগাদ জঙ্গলে ঝুলন্ত পচাগলা মৃতদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা প্রথমে পুলিশকে ফোন করেন। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। এখন ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে নাকি এর পিছনে অন্য রহস্য রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। দিল্লি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ-পশ্চিম) মনোজ সি জানান, পুলিশ কন্ট্রোল রুমে সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে জেএনইউ-এর জঙ্গল এলাকায় একটি মৃতদেহ সম্পর্কিত একটি ফোন আসে। বসন্ত কুঞ্জ উত্তর থানার একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে।

তিনি জানান, তদন্তকারীরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল পরীক্ষা করে সেখান থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছেন। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানার জন্য মৃতদেহ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। তবে মৃত ব্যক্তি জেএনইউর কোনও পড়ুয়া বা কর্মী নয় বলেই দাবি করেছে কর্তৃপক্ষ। জেএনইউর ডিরেক্টর অজয় ​​কুমার দুবে জানান, গত ২০ দিনে জেএনইউ থেকে কোনও নিখোঁজ রিপোর্ট দায়ের করা হয়নি। এটি একটি অজ্ঞাত পরিচয় মৃতদেহ।

বন্ধ করুন