বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চিন সীমান্ত থেকে সরানো হল গালওয়ানে লড়া ১৬ বিহার রেজিমেন্টকে
চিন সীমান্ত থেকে সরানো হল গালওয়ানে লড়া ১৬ বিহার রেজিমেন্টকে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
চিন সীমান্ত থেকে সরানো হল গালওয়ানে লড়া ১৬ বিহার রেজিমেন্টকে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

চিন সীমান্ত থেকে সরানো হল গালওয়ানে লড়া ১৬ বিহার রেজিমেন্টকে

  • ১৬ বিহার রেজিমেন্টের পরিবর্তে এবার সীমান্তে বিহার রেজিমেন্টর অপর একটি ব্যাটেলিয়নকে (১ বিহার রেজিমেন্ট) পাঠানো হচ্ছে।

রাহুল সিং

গালওয়ান সংঘর্ষে অধিকাংশ ১৬ বিহার রেজিমেন্টের জওয়ান ছিলেন। সেই রেজিমেন্টকে পূর্ব লাদাখ সীমান্ত লাগোয়া অঞ্চল থেকে সরিয়ে আনা হচ্ছে। আধিকারিকরা জানিয়েছেন, সীমান্ত আড়াই বছরের মেয়াদ পূর্ণ করেছে রেজিমেন্ট। সেজন্য ওই ব্যাটেলিয়নের জওয়ানদের শান্তিপূর্ণ এলাকায় পাঠানো হচ্ছে। নাম গোপন রাখার শর্তে একথা জানিয়েছেন আধিকারিকরা।

গত ১৫ জুন গালওয়ানে ভারতীয় এবং চিনা সেনার রক্তক্ষয়ী সংঘর্ঘ হয়েছিল। সংখ্যায় ঢের বেশি ছিল চিনা সেনা। হাতে ছিল পেরেক লাগানো লোহার রড। তা সত্ত্বেও পিছু হটেননি ১৬ বিহার রেজিমেন্টের জওয়ানরা। তাঁদের সঙ্গে ছিল ৩ পঞ্জাব, ৩ মিডিয়াম রেজিমেন্ট এবং ৮১ ফিল্ড রেজিমেন্ট। পাঁচ ঘণ্টার বেশি লড়াইয়ের পর চিনা ফৌজিদের মেরে ফেরত পাঠিয়েছিলেন তাঁরা। চিনের তরফে সরকারিভাবে হতাহতের সংখ্যা অবশ্য জানানো হয়নি। ভারতের ২০ জওয়ান মারা গিয়েছিলেন। মৃত্যু হয়েছিল ১৬ বিহার রেজিমেন্টের কমান্ডিং অফিসার কর্নেল বি সন্তোষ বাবু। এবার তাঁর রাজ্য তেলাঙ্গানায় ১৬ বিহার রেজিমেন্টকে পাঠানো হচ্ছে।

এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ১৬ বিহার রেজিমেন্টের পরিবর্তে এবার সীমান্তে বিহার রেজিমেন্টর অপর একটি ব্যাটেলিয়নকে (১ বিহার রেজিমেন্ট) পাঠানো হচ্ছে। দ্বিতীয় আধিকারিক বলেন, ‘১৬ বিহার (রেজিমেন্ট) শান্তিপূর্ণ জায়গায় যাচ্ছে।’

গত মার্চ-এপ্রিলেই ১৬ বিহার রেজিমেন্টের আড়াই বছরের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল বলে জানিয়েছেন তৃতীয় আধিকারিক। কিন্তু করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দেশজুড়ে লকডাউনের ফলে শান্তিপূর্ণ এলাকায় ওই রেজিমেন্টের জওয়ানরা যেতে পারেননি। ভারতীয় সেনার প্রাক্তন উপ-প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল এ এস লাম্বা (অবসরপ্রাপ্ত) বলেন, ‘অভাবনীয় সামরিক পরিস্থিতিতে ১৬ বিহার (রেজিমেন্ট) যে বীরত্ব দেখিয়েছে, ভারতের সামরিক ইতিহাসে তার জায়গা পাওয়াটা আবশ্যিক। ভারতের দীর্ঘ সীমান্তে যে জওয়ানরা মোতায়েন রয়েছেন, তাঁদের অনুপ্রেরণা জোগাবে ওই ব্যাটেলিয়ন।’

বন্ধ করুন