বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Pradhan Mantri Bal Rashtriya Puraskar: এগারো জন শিশুর হাতে প্রধানমন্ত্রী বাল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার তুলে দিলেন রাষ্ট্রপতি

Pradhan Mantri Bal Rashtriya Puraskar: এগারো জন শিশুর হাতে প্রধানমন্ত্রী বাল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার তুলে দিলেন রাষ্ট্রপতি

দাবা খেলোয়ার হিসাবে ইতিমধ্যেই অন্ধ্রপ্রদেশে বেশ পরিচিত মুখ মীনাক্ষী। আন্তর্জাতিক পর্যায়েও দাপটের সঙ্গে দাবা খেলছে সে। সোমবার প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বাল পুরস্কার গ্রহণ করে ক্ষুদে দাবাড়ু। ফাইল ছবি: পিটিআই (PTI)

পাঁচ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিশু, কিশোর-কিশোরীদের মোট ছয়টি বিভাগে বাল পুরস্কার প্রদান করা হয়। শিল্প ও সংস্কৃতি, সাহসিকতা, উদ্ভাবন, পাণ্ডিত্য, সমাজসেবা এবং খেলাধুলার ক্ষেত্রে নজির সৃষ্টি করার কারণে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। প্রত্যেকে একটি পদক, নগদ ১ লক্ষ টাকা এবং একটি শংসাপত্র পান।

Pradhan Mantri Bal Rashtriya Puraskar: সোমবার ১১ জন শিশুর হাতে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বাল পুরস্কার (PMRBP) তুলে দেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। নয়াদিল্লিতে এই পুরস্কার বিতরণীতে এসে রাষ্ট্রপতি জানান, কয়েকজন পুরষ্কার প্রাপক অল্প বয়সেই দুর্দান্ত সাহস এবং বীরত্বের নজির দিয়েছে। তিনি তাঁদের সম্পর্কে জানতে পেরে শুধু অবাকই নন, অভিভূতও হয়েছেন।

পাঁচ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিশু, কিশোর-কিশোরীদের মোট ছয়টি বিভাগে বাল পুরস্কার প্রদান করা হয়। শিল্প ও সংস্কৃতি, সাহসিকতা, উদ্ভাবন, পাণ্ডিত্য, সমাজসেবা এবং খেলাধুলার ক্ষেত্রে নজির সৃষ্টি করার কারণে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। প্রত্যেকে একটি পদক, নগদ ১ লক্ষ টাকা এবং একটি শংসাপত্র পান।

চলতি বছর, দেশের মোট ১১ জন শিশুর হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। এর মধ্যে শিল্প ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে অসামান্য কৃতিত্বের জন্য মোট ৪ জনকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। সাহসিকতার পুরস্কার পেয়েছেন ১ জন। উদ্ভাবনের ক্ষেত্রে সবার নজর কারায় ২ জন এই পুরস্কার জিতেছেন। অন্যদিকে সমাজসেবা এবং খেলাধুলায় কৃতিত্বের জন্য যথাক্রমে ১ ও ৩ জন পুরস্কৃত হয়েছেন।

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও পুরস্কার প্রাপকদের সঙ্গে আলাপচারিতা করেন। উপস্থিত ছিলেন নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিও। শিশু, কিশোর-কিশোরীদের অভিনন্দন জানান তিনি।

<p>খুনসুটির মাঝে… ফাইল ছবি: এএনআই</p>

খুনসুটির মাঝে… ফাইল ছবি: এএনআই

(ANI/PIB)

টুইটারেও এদিনের অনুষ্ঠানের বিষয়ে শেয়ার করেছেন স্মৃতি ইরানি। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী সংগ্রহালয়ে ঘুরে দেখছিলেন পুরস্কারপ্রাপকরা। সেই সময়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পায় তারা।

প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বাল পুরস্কার ২০২৩ - পুরস্কারপ্রাপকদের তালিকা:

১. শ্রেয়া ভট্টাচার্য: অসমের শ্রেয়া একজন দক্ষ তবলা শিল্পী। একটানা দীর্ঘতম সময় ধরে তবলা বাজানোর রেকর্ড রয়েছে তাঁর দখলে। এই বয়সেই 'ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডস'-এ স্থান করে নিয়েছেন তিনি। এই প্রতিভার কারণে এর আগে কালচারাল অলিম্পিয়াড অফ পারফর্মিং আর্টসের মতো বহু পুরস্কার জিতেছে শ্রেয়া।

২. শৌর্যজিৎ রঞ্জিতকুমার খায়ের: গুজরাটের শৌর্যজিত্ জাতীয় স্তরে মল্লখাম্ব খেলেন। ন্যাশানাল গেমস ২০২২-এ তিনি সর্বকনিষ্ঠ পদকপ্রাপক খেলোয়াড় ছিলেন। স্ট্যান্ডিং পোল ওপেন বিভাগে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন। তাঁর পারফরম্যান্সের বেশ কিছু ভিডিয়ো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

৩. সম্ভব মিশ্র: ওড়িশার এই ক্ষুদে লেখক ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি বিখ্যাত প্রকাশনার জন্য অসংখ্য প্রবন্ধ এবং বই লিখেছে। এই বয়সেই 'ফেলোশিপ অফ দ্য রয়্যাল এশিয়াটিক সোসাইটি, লন্ডন'-এর মতো সম্মান পেয়েছে সে। রয়্যাল সোসাইটির ২০০ বছরের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ ফেলো সম্ভব। অসম্ভবকে সত্যিই 'সম্ভব' করেছে সে।

৪. রোহন রামচন্দ্র বাহির: মহারাষ্ট্রের এই সাহসী কিশোর নিজের প্রাণকে তুচ্ছ করে একজন মহিলাকে বাঁচাতে নদীতে ঝাঁপ দেয়। অবিশ্বাস্যভাবে তাঁকে উদ্ধার করে এই ডানপিটে কিশোর। সাহসিকতার জন্য পুরস্কৃত হয়েছে রোহন।

৫. ঋষি শিব প্রসন্ন: কর্ণাটকের সর্বকনিষ্ঠ সার্টিফায়েড Android অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার ঋষি। সংস্কৃতি মন্ত্রকের নির্বাচিত ৪০ জন ভারতীয় যুব আইকনের মধ্যে ঋষি অন্যতম। এই বয়সেই 'Elements of Earth' নামে একটি বইও লিখেছে সে। ও হ্যাঁ, ঋষির IQ বা বুদ্ধিমত্তার মাত্রা ১৮০ । আইনস্টাইনের কত ছিল জানেন? আনুমানিক ১৬০ ।

৬. এম. গৌরবী রেড্ডি: তেলেঙ্গানার এই ছোট্ট নৃত্যশিল্পী ২০১৬ সালে আন্তর্জাতিক নৃত্য পরিষদের সর্বকনিষ্ঠ মনোনীত সদস্য ছিল। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মঞ্চে শাস্ত্রীয় নৃত্য পরিবেশন করেছে।

<p>নৃত্যশিল্পী এম গৌরবী রেড্ডিকে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বাল পুরস্কার প্রদান করছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। ছবি: পিটিআই</p>

নৃত্যশিল্পী এম গৌরবী রেড্ডিকে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বাল পুরস্কার প্রদান করছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। ছবি: পিটিআই

(PTI)

৭. কোলাগাতলা আলানা মীনাক্ষী: দাবা খেলোয়ার হিসাবে ইতিমধ্যেই অন্ধ্রপ্রদেশে বেশ পরিচিত মুখ মীনাক্ষী। আন্তর্জাতিক পর্যায়েও দাপটের সঙ্গে দাবা খেলছে সে। FIDE (আন্তর্জাতিক দাবা ফেডারেশন)-র র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী, ২০২২ সালের মে থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ১১ বছরের কমবয়সী মেয়েদের তালিকায় মীনাক্ষী বিশ্বে ১ নম্বর স্থানে ছিল।

৮. হানায়া নিসার: জম্মু ও কাশ্মীরের এই স্কুলছাত্রী মাত্র ১২ বছর বয়সেই মার্শাল আর্টে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করে। ২০১৮ সালের অক্টোবরে দক্ষিণ কোরিয়ার চিংজুতে অনুষ্ঠিত তৃতীয় বিশ্ব SQAY মার্শাল আর্ট চ্যাম্পিয়নশিপে স্বর্ণপদক জিতেছিল সে।

৯. অনুষ্কা জলি: দিল্লির এই স্কুলছাত্রী 'অ্যান্টি-বুলিং স্কোয়াড-কবচ' নামের একটি অ্যাপ তৈরি করেছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে পড়ুয়ারা নিজেদের মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়ে পরামর্শ নিতে পারে। এর পাশাপাশি স্কুলে সহপাঠীদের কাছে হেনস্থা হওয়া এবং সাইবার বুলিয়িংয়ের সম্পর্কে এই অ্যাপে শিক্ষামূলক অনলাইন ভিডিয়ো রয়েছে।

১০. আদিত্য প্রতাপ সিং চৌহান: ছত্তিশগড়ের এই ক্ষুদে বিজ্ঞানী 'MICROPA' প্রযুক্তি তৈরি করেছেন। এতে কম্পিউটার অ্যালগরিদম ব্যবহার করে পানীয় জল থেকে মাইক্রোপ্লাস্টিক সনাক্ত করা যাবে এবং তা ফিল্টার করা সম্ভব হবে।

১১. আদিত্য সুরেশ: কেরালার কোল্লামের ছোট্ট সঙ্গীতশিল্পী আদিত্য। বিশেষভাবে সক্ষম আদিত্য ছোট থেকেই গানবাজনার প্রতি আগ্রহী। এর আগে আদিত্যর মিউজিক ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন