বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘লিগ ম্যাচ জিতলেই ফাইনালের জয় নিশ্চিত হয় না’, মোদীকে খোঁচা প্রশান্ত কিশোরের

‘লিগ ম্যাচ জিতলেই ফাইনালের জয় নিশ্চিত হয় না’, মোদীকে খোঁচা প্রশান্ত কিশোরের

২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন নিয়ে মোদীর দাবি ওড়ালেন প্রশান্ত কিশোর

‘ফাইনাল তো এখনও বাকি’, ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন নিয়ে মোদীর দাবি ওড়ালেন প্রশান্ত কিশোর।

পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে ভরাডুবি হয়েছে কংগ্রেসের। এর মধ্যে উত্তরপ্রদেশ সহ চার রাজ্য দখল করেছে বিজেপি। আর এরপরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ইঙ্গিতবহ ভাবে বোঝান, ২২-এর ফলের পুনরাবৃত্তি ঘটবে ২৪-এ। আর এরপরই ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর প্রধানমন্ত্রীর এই দাবিকে খণ্ডন করেছিলেন। আর এবার ফের একবার এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে কটাক্ষ করলেন প্রশান্ত কিশোর। প্রশান্ত কিশোর বললেন, ‘লিগ ম্যাচ জেতা মানেই ফাইনালে জয় নয়।’ উত্তরপ্রদেশ সহ বাকি রাজ্যের নির্বাচনকে তিনি ‘লিগ ম্যাচ’ বলে অভিহিত করে দাবি করেন, ২০২৪ সালের লড়াই ২০২৪ সালেই হবে।

ইন্ডিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে প্রশান্ত কিশোর বলেন, ‘তিনি (প্রধানমন্ত্রী মোদী) এটা অন্য যে কারও চেয়ে বেশি জানেন যে রাজ্য নির্বাচন লোকসভা নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিতে পারে না।’ উত্তরপ্রদেশেরই উদাহরণ তুলে ধরে প্রশান্ত কিশোর বলেন, ‘২০১২ সালে উত্তরপ্রদেশে বিজেপি চার নম্বরে ছিল। তবে ২০১৪ সালে সেই বিজেপি উত্তরপ্রদেশে খুব ভালো ফল করেছিল।’

পিকে বলেন, ‘এটা একটা টুর্নামেন্টের মত... যেখানে আপনি লিগ ম্যাচে জয় পেয়েছেন। কিন্তু ফাইনালে এটা যে একই রকম হবে তা নয়। যদিও আপনি উত্তেজনা অনুভব করতে পারেন এবং ধারাভাষ্যকাররা বলতে পারেন যে আপনার অ্যাডভান্টেজে আছেন কারণ আপনি লিগ ম্যাচে সেই দলগুলিকে পরাজিত করেছেন। কিন্তু ফাইনালে একই দলকে হারাতে পারবেন যে, তার নিশ্চয়তা কী?’

এর আগে পাঁচ রাজ্যের ফল প্রকাশ হওয়ার পর বিজেপির প্রধান কার্যালয়ে বিজেপি কর্মীদের উদ্দেশে এক ভাষণে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছিলেন, ‘২০১৯ সালের নির্বাচনের ফলাফলের পরে কিছু রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ বলেছিলেন, ২০১৯ সালের জয়ে কী আছে, সেটা তো ২০১৭ সালেই ঠিক হয়ে গিয়েছিল। কারণ ২০১৭ সালে উত্তরপ্রদেশের ফল প্রকাশ হয়েছিল। আমি বিশ্বাস করি এবারও এই জ্ঞানীগুণীরা নিশ্চয়ই বলার সাহস দেখাবেন যে ২০২২ সালের ফলাফল ২০২৪ সালের ফলাফল নির্ধারণ করেছে।’ যদিও মোদীর এই উক্তির পরই প্রশান্ত কিশোর টুইট করে লিখেছিলেন, ‘সাহেব (মোদী) খুব ভালো করে জানেন যে ২০২৪ সালের ফল ২০২৪ সালেই নির্ধারিত হবে।’

 

বন্ধ করুন