বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ, সহানুভূতি আদায়ের চেষ্টা চলছে! মোদী সরকারকে কটাক্ষ পিকে-র
প্রশান্ত কিশোর (ছবি সৌজন্যে সন্তোষ কুমার/হিন্দুস্তান টাইমস)
প্রশান্ত কিশোর (ছবি সৌজন্যে সন্তোষ কুমার/হিন্দুস্তান টাইমস)

করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ, সহানুভূতি আদায়ের চেষ্টা চলছে! মোদী সরকারকে কটাক্ষ পিকে-র

  • প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে কটাক্ষ ভরা সুরে 'কৃতজ্ঞতা' জ্ঞাপন করেছেন প্রশান্ত কিশোর।

করোনার জেরে বহু শিশু নিজেদের মা-বাবাদের হারিয়ে অনাথ হচ্ছে। এই অতিমারীর সময়ে যে সমস্ত শিশু অনাথ হচ্ছে, তাদের ভবিষ্যৎ গড়ে দেওয়ার দায়িত্ব নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে মোদী সরকার। কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করে জানানো হয়েছে, ওই শিশুদের ভবিষ্যৎ গড়ার জন্য পিএম কেয়ারস ফান্ড থেকে অর্থ খরচ করা হবে। তবে সেই সিদ্ধান্তকে এবার কটাক্ষ করলেন প্রশান্ত কিশোর।

এই বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছেন ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে কটাক্ষ ভরা সুরে 'কৃতজ্ঞতা' জ্ঞাপন করেছেন প্রশান্ত কিশোর। এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে তোপ দেগে পিকে একাধিক টুইট করেন। প্রথম টুইটে পিকে কটাক্ষ করে মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তকে মাস্টারস্ট্রোক হিসেবে উল্লেখ করেন। তাঁর অভিযোগ, করোনা মোকবিলায় ব্যর্থ সরকার এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়ে সহানুভূতি আদায় করার চেষ্টা করছে।

এরপর প্রশান্ত কিশোর নিজের যুক্তি পেশ করে লেখেন, এখন সাহায্য পাওয়ার বদলে ১৮ বছর বয়স হওয়ার পর যে বৃত্তি পাওয়া যাবে এটা ভেবেই শিশুদের এখন ইতিবাচক মনোভাব নিতে হবে। অপর একটি টুইটে করোনায় অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষা দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে মোদী সরকারের সমালোচনা করেছেন প্রশান্ত। তাঁর বক্তব্য, বিনামূল্যে শিক্ষার অধিকার সংবিধান স্বীকৃত। তাঁর অলিখিত প্রশ্ন, আলাদা করে তা করোনার জেরে অনাথ হওয়া শিশুদের জন্যে ঘোষণা করার কি আছে।

এর আগে শনিবারের কেন্দ্র ঘোষণা করে জানায়, করোনার জেরে অনাথ হওয়া শিশুদের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এই নিয়ে প্রশান্ত কিশোর লিখেছেন, প্রধানমন্ত্রীর দফতরকে ধন্যবাদ যে আয়ুষ্মান ভারতে অন্তর্ভুক্ত করার আশ্বাস দিয়েছে বলে। যে প্রকল্প ৫০ কোটি ভারতীয়কে স্বাস্থ্যসুরক্ষা দেওয়ার জন্য তৈরি হয়েছে। অথচ প্রয়োজনের সময় বেড, অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে না।

বন্ধ করুন