লকডাউনে খাদ্যশস্যর বস্তা কাঁধে নিয়ে নির্জন প্রয়াগরাজের রাজপথে মালবাহক। এপি-র ছবি। (AP)
লকডাউনে খাদ্যশস্যর বস্তা কাঁধে নিয়ে নির্জন প্রয়াগরাজের রাজপথে মালবাহক। এপি-র ছবি। (AP)

করোনা সংক্রমণের জন্য জামাতকে দূষে খুন প্রয়াগরাজের যুবক

  • ধৃতদের বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তা আইন (এনএসএ) অনুযায়ী অভিযোগ দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের জন্য দিল্লির নিজামুদ্দিনে অনুষ্ঠিত তবলিঘি জামাত আয়োজিত ধর্মীয় সমাবেশকে দূষে দুষ্কৃতীর গুলিতে নিহত হলেন প্রয়াগরাজ তথা এলাহাবাদবাসী যুবক।

রবিবার পুলিশ জানিয়েছে, এ দিন সকালে শহরের করেলি অঞ্চলে নিজের বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে থাকা বছর উনত্রিশের ওই যুবককে গুলি করে অজ্ঞাতপরিচয় বন্দুকবাজরা। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন, ধৃতদের বিরুদ্ধে কড়া জাতীয় নিরাপত্তা আইন (এনএসএ) অনুযায়ী অভিযোগ দায়ের করতে। পাশাপাশি, নিহতের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা অনুদানের ঘোষণাও করেন আদিত্যনাথ।

স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্ধৃত করে প্রয়াগরাজ সার্কেল অফিসার অমিত শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, এ দিন সকালে স্থানীয় আড্ডায় ভারতে করোনা সংক্রমণের জন্য বিশেষ এক ধর্মীয় সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছিলেন নিহত যুবক। সেই সঙ্গে নিজামুদ্দিনে তবলিঘি জামাতের সমাবেশকেও দেশে করোনা সংক্রমণের জন্য তিনি দায়ী করেন।

এই সময় ওই আড্ডা ছেড়ে বেরিয়ে যান এক ব্যক্তি। কিছু ক্ষণ পরে আরও কয়েক জনকে নিয়ে তিনি ফিরে আসেন।

শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, ‘ওই যুবক নিজের বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে থাকার সময় অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্ক-তীরা তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। একটি গুলি তাঁর মাথায় বিঁধে গেলে তৎক্ষনাৎ মৃত্যু হয় যুবকের।’

শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, ধৃত দুই ব্যক্তিকে জেরা করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন