বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'যোগ ও আয়ুর্বেদকে কোনও একটি ধর্মের সঙ্গে সংযুক্ত করে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে'! বার্তা রাষ্ট্রপতির
ভোপালের অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ও মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। (ANI Photo) (Sanjeev Gupta)

'যোগ ও আয়ুর্বেদকে কোনও একটি ধর্মের সঙ্গে সংযুক্ত করে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে'! বার্তা রাষ্ট্রপতির

  • 'ওয়ান নেশন-ওয়ান হেল্থ' এর এক অনুষ্ঠানে 'আরোগ্য মন্থন' শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সেখানে তিনি বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, ‘আমাদের একটি সার্বিক উদ্যোগ প্রয়োজন।’

শ্রুতি তোমার

মধ্যপ্রদেশের ভোপালে আয়োজিত 'ওয়ান নেশন-ওয়ান হেল্থ'- এর এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে শনিবার বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সেখানে তিনি বলেন, কেউ কেউ যোগভ্যাস ও আয়ুর্বেদের মতো বিষয়ের সঙ্গে কোনও একটি ধর্মের সংযোগ করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন, যা খুবই দুর্ভাগ্যের। এদিকে, ওই একই অনুষ্ঠানে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেছেন, তাঁর মতে ভারতীয়দের দাঁত ও শরীরের গঠন এমনভাবে তৈরি যা কেবল নিরামিষ ভোজনেরই যোগ্য।

'ওয়ান নেশন-ওয়ান হেল্থ' এর এক অনুষ্ঠানে 'আরোগ্য মন্থন' শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সেখানে তিনি বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, 'আমাদের একটি সার্বিক উদ্যোগ প্রয়োজন। পুরনো বৈজ্ঞনিক মেডিক্যাল সিস্টেমের সঙ্গে নতুন মেডিক্যাল সিস্টেমকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। তবে কয়েকজন যোগভ্যাস ও আয়ুর্বেদের সঙ্গে একটিু বিশেষ ধর্মকে সংযুক্ত করে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন।' তিনি বলেন এই ধরমের মানুষরা বাড়িতে যোগভ্যাস করে বাইরে তার বিরেধিতা করেন আর যোগভ্যাসের সঙ্গে একটি বিশেষ ধর্মকে সংযুক্ত করে নেন। অন্যদিকে অনুষ্ঠানে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেন, 'সুস্থ থাকতে যোগভ্যাস আর খাদ্যের খুবই প্রয়োজন। আমার মতে যে পদ্ধতিতে আমরা খাওয়া দাওয়া করি সেইভাবেই আমরা ব্যবহারও করি। আমাদের দাঁত ও অন্ত্র শুধুমাত্র ভেজিটেরিয়ান খেতেই অভ্যস্ত। আমি এটা কারোর ওপর চাপিয়ে দিচ্ছি না, বা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবেও বলছি না। নয়তো আবার বলা হবে মুখ্যমন্ত্রী এটা বলেছেন।' রোহিঙ্গাদের নিয়ে কোন আশঙ্কার মেঘ বাংলাদেশে! ভারতের সাহায্য চাইছে ঢাকা

এদিকে অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইতে বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকদের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন,'গত আড়াই বছর বিশ্ব ভয়াবহ অতিমারীর মধ্যে ছিল। বিজ্ঞানী এবং ডাক্তাররা ভ্যাকসিন তৈরি করে মানুষের জীবন বাঁচিয়েছেন। আমরা ভ্যাকসিনের গুরুত্ব বুঝতে পেরেছি কারণ ১০০ বছর আগে একই ধরনের মহামারী ছড়িয়ে পড়েছিল এবং লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা গিয়েছিলেন।' এই বিষয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রামনাথ কোবিন্দ বলেন, সদ্য তিনি ক্যারিবিয়ান দেশগুলিতে গিয়ে কী পরিস্থিতি দেখেছেন। সেখানের মানুষ কোভিড ভ্যাকসিনের জন্য ভারতের মুখাপেক্ষী বলেও এদিনের অনুষ্ঠানে বর্ণনা করেন তিনি।

বন্ধ করুন