বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাওয়ার রাজি নন, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রার্থীর জন্য আবারও বৈঠক মমতাদের
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পাওয়ার রাজি নন, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রার্থীর জন্য আবারও বৈঠক মমতাদের

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা এই বৈঠকে উপস্থিত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়া, অখিলেশ যাদব, শরদ পাওয়ার, প্রফুল প্যাটেল, মেহবুবা মুফতি, ওমর আবদুল্লা, মনোজ ঝাঁ, এলামারাম করিম, দীপঙ্কর ভট্টাচার্য, এন কে প্রেমচন্দ্রন, প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী, টি আর বালু এবং কংগ্রেসের মল্লিকার্জুন খাড়গে, জয়রাম রমেশ।

নয়াদিল্লির বিরোধী শিবিরের মেগা বৈঠক থেকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে নয়াদিল্লির কনস্টিটিউশন হলে উপস্থিত ১৬ অবিজেপি রাজনৈতিক দলের ১৭ জন প্রতিনিধি তাঁর প্রস্তাবিত নামের সঙ্গে সহমত পোষণ করেছেন। হাইভোল্টেজ এই বৈঠকে নজর ছিল গোটা দেশের। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিরোধীদের এককাট্টা করতে সক্ষম হলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

ঠিক কী বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?‌ আজ, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী নয়াদিল্লি থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে বলেন, ‘‌বিরোধীরা সবাই একমত হয়েছেন রাষ্ট্রপতি পদের প্রার্থী নিয়ে। শরদ পাওয়ারের নাম সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে। উনি রাজি হলে সবাই তাঁকেই সমর্থন করবেন। আর উনি যদি রাজি না হন তাহলে বিকল্প পরে ভাবা যাবে। আমরা আবার একসঙ্গে বৈঠকে বসব।’‌ তবে এটা কার্যত স্পষ্ট যে পাওয়ার ভোটে দাঁড়াচ্ছেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আবার বৈঠক হবে বিরোধী নেতাদের।

আর কী রণকৌশল ঠিক হয়েছে?‌ সূত্রের খবর, এখানে উপস্থিত বিরোধী নেতা–নেত্রীরা এখন থেকেই শরদ পাওয়ারকে রাজি হতে বলেছেন। কারণ শরদ পাওয়ার প্রার্থী হলে নিঃসন্দেহে বিজেপি চাপে পড়ে যাবে। কংগ্রেসের সঙ্গে শরদ পাওয়ারের সম্পর্ক ভাল। আবার মহারাষ্ট্রে সরকারে আছে তাঁর দল। বাকিরা বিজেপির ধরপাকড় নীতি থেকে বাঁচতে শরদ পাওয়ারকেই সমর্থন করবেন। এই বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌বিরোধীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া খুব জরুরি। কারণ বিজেপি সরকার সমস্ত কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে বিরোধীদের খতম করতে ব্যবহার করছে। তাই আমরা আবার এমন বৈঠক করব।’‌

কারা উপস্থিত হলেন বৈঠকে?‌ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা এই বৈঠকে উপস্থিত হয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়া, অখিলেশ যাদব, শরদ পাওয়ার, প্রফুল প্যাটেল, মেহবুবা মুফতি, ওমর আবদুল্লা, মনোজ ঝাঁ, এলামারাম করিম, দীপঙ্কর ভট্টাচার্য, এন কে প্রেমচন্দ্রন, প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী, টি আর বালু এবং কংগ্রেসের মল্লিকার্জুন খাড়গে, জয়রাম রমেশ। এই বৈঠকে যোগ দেয়নি টিআরএস, আপ, অকালি দল, বিজেডি–সহ পাঁচটি অবিজেপি দল। তবে এখনও আস্তিনেই রাখা হল গোপালকৃষ্ণ গান্ধীর নাম।

বন্ধ করুন