বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নভেম্বর অবধি বিনামূল্যে রেশন পাবেন ৮০ কোটি মানুষ
করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে গরিবদের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর: ছবি (‌সৌজন্য পিটিআই)‌ (PTI)
করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে গরিবদের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর: ছবি (‌সৌজন্য পিটিআই)‌ (PTI)

নভেম্বর অবধি বিনামূল্যে রেশন পাবেন ৮০ কোটি মানুষ

  • দ্বিতীয় লকডাউনের সময়ও মে-‌জুন মাসে গরিবদের বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হচ্ছে। এবার এই সময়সীমা বাড়িয়ে নভেম্বর পর্যন্ত করা হল। সেক্ষেত্রে দেশের ৮০ কোটি নাগরিক উপকৃত হবেন। প্রত্যেক মাসে এই প্রকল্পের অধীনে থাকা মানুষেরা যে যার সীমা অনুসারে বিনামূল্যে খাদ্যশস্য পাবেন।’‌

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়েও গরিবদের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার অধীনে চলতি বছরের নভেম্বর মাস পর্যন্ত দেশের দরিদ্র সীমার নীচে বসবাসকারী নাগরিকদের জন্য বিনামূল্যে খাদ্যশস্য দেওয়ার ঘোষণা করেছেন তিনি।

সোমবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে টিকাকরণের পাশাপাশি গরিবদের অন্নসংস্থানের ওপরেও জোর দেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন তিনি বলেন, ‘‌ গতবারের লকডাউনে অসংখ্য খেটে খাওয়া মানুষদের যাতে দু’‌বেলার দু’‌মুঠো অন্ন সংস্থান হয়, সেজন্য কেন্দ্রীয় সরকার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার মাধ্যমে তাঁদের বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল। দ্বিতীয় লকডাউনের সময়ও মে-‌জুন মাসে গরিবদের বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হচ্ছে। এবার এই সময়সীমা বাড়িয়ে নভেম্বর পর্যন্ত করা হল। সেক্ষেত্রে দেশের ৮০ কোটি নাগরিক উপকৃত হবেন। প্রত্যেক মাসে এই প্রকল্পের অধীনে থাকা মানুষেরা যে যার সীমা অনুসারে বিনামূল্যে খাদ্যশস্য পাবেন।’‌

২০২০ সালে করোনার প্রথম ঢেউয়ের সময় কোনও ব্যক্তি বা কোনও দরিদ্র পরিবারকে যাতে অনাহারের মুখোমুখি না হতে হয়, সেজন্য কেন্দ্র প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার অধীনে বিনামূল্যে রেশন বিতরণ পরিষেবা জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত পাঁচ মাস বাড়িয়ে দেয়। এই প্রকল্পের আওতায় রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে ৯.৭ লক্ষ মেট্রিক টন মোটা শস্য বিতরণ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়।

 সেক্ষেত্রে ২০১৩ সালের জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন অনুযায়ী সুবিধাভোগী পরিবারপিছু প্রতি মাসে ১ কেজি করে মোটা শস্য বিতরণ করা হয়। এর জন্য ৬,৮৪৯.২৪ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। এই প্রকল্পের আওতায় প্রায় ১৯.৪ কোটি নাগরিক রয়েছেন। পিএমজিওয়াই-এর প্রথম পর্যায়ে (এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত) ৪.৬৩ লক্ষ মেট্রিক টন ডাল বিতরণ করা হয়েছিল। ফলে সারা দেশে ১৮.২ কোটি পরিবার উপকৃত হয়েছিলেন।

 

বন্ধ করুন