বাড়ি > ঘরে বাইরে > Modi 2.0: করোনা-শ্রমিক থেকে এয়ার স্ট্রাইক-আমফান, দ্বিতীয় দফার এক বছর পূর্তিতে চিঠি মোদীর
নরেন্দ্র মোদী 
নরেন্দ্র মোদী 

Modi 2.0: করোনা-শ্রমিক থেকে এয়ার স্ট্রাইক-আমফান, দ্বিতীয় দফার এক বছর পূর্তিতে চিঠি মোদীর

  • মোদী বলেন, ‘আমি দিন-রাত কাজ করছি। আমার মধ্যে কিছু কমতি থাকতে পারে এবং আমাদের দেশে কোনও কিছু অভাব নেই।’

ঠিক এক বছর আগে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দ্বিতীয় বারের জন্য দিল্লির মসনদে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর নিজের দফার প্রথম বর্ষপূর্তিতে দেশবাসীর উদ্দেশে চিঠি লিখলেন তিনি। ভারতকে বিশ্বের উন্নয়নের অন্যতম মুখ বানানোর স্বপ্ন পূরণের জন্য কী কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, চিঠিতে সেই খতিয়ানও তুলে ধরেন মোদী।

একইসঙ্গে আগামীদিনে ভারতের সামনে কী কী চ্যালেঞ্জ রয়েছে এবং দেশের অর্থনৈতিক লক্ষ্যেরও ব্যাখ্যা দেন তিনি। দেশবাসীর উদ্দেশে সেই চিঠিতে আর কী কী বলেছেন মোদী, দেখে নিন একনজরে -

১) ২০১৪ সালে দেশের মানুষ বড়সড় পরিবর্তনের জন্য ভোট দিয়েছিলেন। গত পাঁচ বছরে দেশ দেখেছে কীভাবে প্রচলিত কার্যধারা, দুর্নীতি এবং কুশাসন ভেঙে বেরিয়েছে প্রশাসনিক কাঠামো। 'অন্ত্যদয়' ভাবধারার প্রতি অবিচল থেকে লাখ লাখ মানুষের জীবন পালটে গিয়েছে।

২) ২০১৪ সালের থেকে ২০১৯ সালে ভারতের খ্যাতি উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। গরীবের সম্মান বেড়েছে। আর্থিক সাহায্য, বিনামূল্যে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ, পুরো শৌচালয়ের আওতায় আসার কৃতিত্ব অর্জন করেছে দেশ এবং সবার জন্য বাড়ি নিশ্চিত করার দিকে এগিয়েছে। সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এবং এয়ার স্ট্রাইকের মাধ্যমে নিজের সাহস-ক্ষমতা দেখিয়েছে ভারত। একইসঙ্গে 'এক পদ, এক পেনশন' (ওআরওপি), 'এক দেশ এক কর' জিএসটি এবং কৃষকদের জন্য ভালো ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের মতো দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হয়েছে।

৩) সংবিধানের ৩৭০ ধারা নিয়ে সিদ্ধান্ত দেশের একতা এবং অখণ্ডতার ভাবধারাকে আরও প্রসারিত করেছে। সর্বসম্মতিক্রমে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের রাম মন্দির রায়ের ফলে শতকের পর শতক ধরে চলতে থাকা বিতর্কে সৌহার্দ্যপূর্ণ ইতি পড়েছে। তিন তালাকের মতো বর্বর প্রথা ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে ঠাঁই পেয়েছে। নাগরিকত্ব আইনের সংশোধন ভারতের সহানুভূতি এবং একতার ভাবধাবার প্রতীক।

৪) যখন করোনাভাইরাস দেশে এসেছিল, তখন অনেকে ভেবেছিলেন বিশ্বের জন্য সমস্যা তৈরি করবে ভারত। কিন্তু আজ অসামান্য আত্মবিশ্বাস এবং সহনশীলতার মাধ্যমে আপনারা পালটে দিয়েছেন কীভাবে বিশ্ব আমাদের দিকে দেখছে। আপনারা প্রমাণ করেছেন, মিলিত শক্তি এবং ভারতীয়দের সম্ভাবনা বিশ্বের শক্তিশালী এবং উন্নত দেশগুলির নিরিখেও অতুলনীয়।

৫) এরকম মাত্রার সংকটের সময় এটা দাবি করা যাবে না যে কেউ অসুবিধা বা অস্বস্তির শিকার হননি। আমাদের শ্রমিক, পরিযায়ী শ্রমিক, ক্ষুদ্র শিল্পের কর্মী, হকার এবং এরকম দেশবাসী প্রচণ্ড কষ্টের মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন। সমস্যাকে কমানোর জন্য আমরা মিলিত ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞভাবে কাজ করছি।

৬) গত কয়েকদিনে পশ্চিমবঙ্গ এবং ওড়িশার কয়েকটি অংশে তছনছ করেছে একটি সুপার সাইক্লোন। এক্ষেত্রেও ওই রাজ্যগুলির মানুষের সহনশীলতা চোখে পড়ার মতো। তাঁদের সাহসিকতা ভারতবাসীকে অনুপ্রাণিত করেছে।

৭) অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নিজেদের ক্ষমতা দিয়ে ১৩০ কোটি ভারতীয় যে শুধু বিশ্বকে চমকে দিতে পারে, তাই নয়, অনুপ্রাণিতও করতে পারে। এখন এটা সময়ের চাহিদা যে আমরা আত্মনির্ভর হয়ে উঠি। নিজেদের মতো করে নিজেদের ক্ষমতা অনুযায়ী আমাদের এগিয়ে যেতে হবে এবং সেটা করার একটাই উপায় আছে - আত্মনির্ভর ভারত।

৮) আমাদের শ্রমিকদের ঘাম, কঠোর পরিশ্রম এবং প্রতিভার সঙ্গে ভারতীয় মাটির সৌরভ বিভিন্ন সামগ্রী তৈরি করবে, যা আমদানির উপর ভারতের নির্ভরশীলতা কমিয়ে আত্মনির্ভরতার দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

৯) এটা আপনাদের আশীবার্দের শক্তি যে গত এক বছরে দেশ ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং ক্রমশ অগ্রগতি করেছে। তবে আমি এটাও জানি, অনেক কিছু করার প্রয়োজনীয়তা আছে। আমি দিন-রাত কাজ করছি। আমার মধ্য়ে কিছু কমতি থাকতে পারে এবং আমাদের দেশে কোনও কিছু অভাব নেই। তাই আমি আপনাদের, আপানাদের ক্ষমতা এবং আপনাদের দক্ষতায় বিশ্বাস করি আমি। এমনকি নিজের থেকেও বেশি।

১০) আমার প্রতিজ্ঞার শক্তি হলেন আপনারা, আপনাদের সহায়তা, আশীর্বাদ এবং ভালোবাসা। বিশ্বজুড়ে মহামারীর কারণে এটা অবশ্যই সংকটের সময়। তবে আমরা ভারতীয়দের জন্য এটা অবশ্যই দৃঢ়প্রতিজ্ঞার সময়।

বিশেষ বার্তা

পশ্চিমবঙ্গের ত্রাণ তহবিলে দান করুন

WEST BENGAL STATE EMERGENCY RELIEF FUND

(Part of Chief Minister Relief Fund)

https://wbserf.wb.gov.in/wbserf

A/C No: 628005501339

Bank: ICICI Bank

Branch: Howrah

IFSC Code: ICIC0006280

MICR Code: 700229010

SWIFT Code: ICICINBBCTS

বন্ধ করুন