বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আরও অস্ত্রসাহায্য চেয়ে শলৎসের সঙ্গে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক
শলৎসের সঙ্গে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক। ছবি ডয়চে ভেল

আরও অস্ত্রসাহায্য চেয়ে শলৎসের সঙ্গে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক

  • ডেনিস জানিয়েছেন, গত কয়েকমাসে বার্লিন কিয়েভকে গুরুত্বপূর্ণ সমরাস্ত্র দিয়ে সাহায্য করেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হাউৎজার ২০০০ এবং রকেট লঞ্চার। এই অস্ত্র অত্যন্ত কাজে লেগেছে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী।

জার্মানির কাছে আরও অস্ত্রসাহায্য চেয়েছে ইউক্রেন। জার্মানি সামরিক, রাজনৈতিক সাহায্য দিতে সম্মত হয়েছে। রোববার বার্লিনে বৈঠক হয় জার্মান চ্যান্সেলর ওলফ শলৎস এবং ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শেমহালের। যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর ইউক্রেনের এই পর্যায়ের কোনো কর্মকর্তা এই প্রথম জার্মানি গেলেন। শলৎসের কাছে আরো যুদ্ধাস্ত্রের আর্জি জানিয়েছেন ডেনিস। শলৎস অস্ত্র দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

ডেনিস জানিয়েছেন, গত কয়েকমাসে বার্লিন কিয়েভকে গুরুত্বপূর্ণ সমরাস্ত্র দিয়ে সাহায্য করেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হাউৎজার ২০০০ এবং রকেট লঞ্চার। এই অস্ত্র অত্যন্ত কাজে লেগেছে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, এই সমস্ত অস্ত্রের পাশাপাশি জার্মানির কাছ থেকে এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম নিতে চায় ইউক্রেন।

বৈঠকের পর টুইট করে ডেনিস জানিয়েছেন, শলৎসের সঙ্গে তার বৈঠক ফলপ্রসূ হয়েছে। জার্মানি ইউক্রেনকে আরও সাহায্য দেওয়ার কথা বলেছে। সামরিক দিক থেকে সমস্ত সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। শলৎসের আগে জার্মানির প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ডেনিস। প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, বার্লিন সবসময় কিয়েভের পাশে থাকবে। ইউক্রেনকে সবরকম সাহায্য করা হবে। অন্যদিকে শলৎস বলেছেন, ইউক্রেনকে কেবল সামরিক সাহায্য নয়, রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক সাহায্যও দেওয়া হবে। কিয়েভের পাশে থাকবে জার্মানি।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: প্রতিবেদনটি ডয়চে ভেলে থেকে নেওয়া হয়েছে। সেই প্রতিবেদনই তুলে ধরা হয়েছে। হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার কোনও প্রতিনিধি এই প্রতিবেদন লেখেননি।)

বন্ধ করুন