বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উলটপূরাণ! সামাজে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে লিভ-ইনের, জানাল পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট
সামাজে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে লিভ-ইনের, জানাল পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট 
সামাজে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে লিভ-ইনের, জানাল পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট 

উলটপূরাণ! সামাজে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে লিভ-ইনের, জানাল পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট

  • দুইদিন আগেই পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট জানিয়েছিল, লিভ-ইন সম্পর্ক নৈতিকভাবে ও সামাজিকভাবে গ্রহণযোগ্য নয়।

দুইদিন আগেই পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট জানিয়েছিল, লিভ-ইন সম্পর্ক নৈতিকভাবে ও সামাজিকভাবে গ্রহণযোগ্য নয়। আদালতের সেই পর্যবেক্ষণ ঘিরে তৈরি হয়েছিল বিস্তর বিতর্ক। এবার অপর একটি মামলার প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট তার আগের অবস্থান থেকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়ে জানাল, সামাজিকভাবে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে লিভ-ইন সম্পর্কের। আদালত আরও জানায়, যখন একটি বিবাহিত দম্পতি সুরক্ষার আবেদন জানাচ্ছে এবং যখন লিভ-ইনে থাকা দম্পতি সুরক্ষার আবেদন জানাচ্ছে, দুটোর মধ্যে কোনও ফারাক নেই।

এদিন বিচারপতি সুধীর মিত্তলের বেঞ্চ জানায়, যেকোনও নাগরিক যেভাবে সুরক্ষার আবেদন করতে পারেন, সেই একই ভাবে যেকোনও লিভ-ইনে থাকা দম্পতিও সুরক্ষার আবেদন জানাতে পারে। সুরক্ষা পাওয়ার সমান অধিকার রয়েছে তাদের। আগে বড় শহরের শিক্ষিতদের মধ্যে লিভ-ইনের প্রবণতা বেশি ছিল। পশ্চিমা বিশঅব থেকে এই প্রথা আয়ত্ত করা হলেও বর্তমানে আমাদের সমাজে এর গ্রহণ যোগ্যতা বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে ছোট শহরগুলিতেও লিভ-ইন সম্পর্ক বাড়ছে।

উল্লেখ্য, পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টে দায়ের করা একটি মামলাতে দুই দিন আগেই মামলা করে ১৯ বছরের গুলজা কুমারী ও ২২ বছরের গুরবিন্দর সিং জানিয়েছিলেন, তাঁরা একসঙ্গে থাকছেন এবং শিগগিরই বিয়ে করবেন৷ তবে গুলজার পরিবারের তরফে তাঁদের প্রাণনাশের ঝুঁকি রয়েছে বলে আদালতের কাছে সুরক্ষা চেয়েছিল ওই যুগল৷ তাঁদের আইনজীবী জানান, তরণ তারণে একসঙ্গে থাকেন ওই যুগল৷ তবে গুলজার পরিবারের এই সম্পর্কে আপত্তি রয়েছে৷ তাঁর বয়সের প্রমাণ-সহ অন্যান্য নথি পরিবারের কাছে থাকায় এখনই তাঁরা বিয়ে করতে পারছেন না বলেও আদালতকে জানায় যুগল৷

তবে হাইকোর্ট সেই আবেদন খারিজ করে দিয়েছে৷ বিচারপতি এইচএস মাদান বলেছেন, 'এই পিটিশনের দ্বারা আবেদনকারীরা তাঁদের লিভ-ইন সম্পর্কে সম্মতি চাইছেন৷ এমন সম্পর্ক নৈতিকভাবে ও সামাজিকভাবে গ্রহণযোগ্য নয় এবং এ ক্ষেত্রে আবেদনকারীদের কোনও সুরক্ষার নির্দেশ দেওয়া যাবে না৷ এই পিটিশন তাই খারিজ করে দেওয়া হচ্ছে৷'

বন্ধ করুন