বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Rail concession- শিল্পপতিদের জন্য টাকা আছে, প্রবীণদের জন্য নেই, কটাক্ষ রাহুলের
রাহুল গান্ধী। (ANI Photo) (ANI)

Rail concession- শিল্পপতিদের জন্য টাকা আছে, প্রবীণদের জন্য নেই, কটাক্ষ রাহুলের

  • রাহুল গান্ধী টুইটারে লেখেন, ‘কেন্দ্র সরকার বিজ্ঞাপনের জন্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য নতুন বিমান কেনার ক্ষেত্রে এবং শিল্পপতি বন্ধুদের করে ছাড় দেওয়ার জন্য লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করতে পারছে। প্রবীণ নাগরিকদের ছাড় দেওয়ার জন্য দেড় হাজার কোটি টাকা ব্যয় করতে পারছে না।’

প্রবীণ নাগরিকরা আগে রেলের টিকিটে ৫০ শতাংশ ছাড় পেতেন। কিন্তু, করোনা অতিমারির পর থেকেই সেই ছাড় বন্ধ রেখেছে কেন্দ্র। তবে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসলেও এখনও সেই নির্দেশ বলবৎ রয়েছে। প্রবীণ নাগরিকদের ক্ষেত্রে আপাতত ছাড় ফিরিয়ে আনা হবে না বলে গত বুধবার সংসদে জানিয়েছে কেন্দ্র। এ নিয়ে কেন্দ্রর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। তাঁর কটাক্ষ, মোদী সরকার বন্ধুদের জন্য লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা খরচ করতে পারছে। অথচ দেশের প্রবীণদের জন্য টিকিটে ছাড় দিতে পারছে না।

রাহুল গান্ধী টুইটারে লেখেন, ‘কেন্দ্র সরকার বিজ্ঞাপনের জন্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য নতুন বিমান কেনার ক্ষেত্রে এবং শিল্পপতি বন্ধুদের করে ছাড় দেওয়ার জন্য লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করতে পারছে। প্রবীণ নাগরিকদের ছাড় দেওয়ার জন্য দেড় হাজার কোটি টাকা ব্যয় করতে পারছে না।’ এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ‘বন্ধুদের জন্য প্রয়োজনে আকাশের তারা আনার’ কথা উল্লেখ করে কেন্দ্রকে কটাক্ষ করেন রাহুল গান্ধী।

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতির আগে পর্যন্ত প্রবীণ নাগরিকরা টিকিটে ৫০ শতাংশ ছাড় পেতেন। কিন্তু, করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পরেই রেল লোকসানের মুখে পড়ে। এরপরেই প্রবীর নাগরিক, এমনকি ক্রীড়াবিদদের টিকিটে ছাড় উঠিয়ে দেওয়া হয়।

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব দাবি করেন, ২০১৯ থেকে ২০ অর্থ বর্ষে প্রবীণ নাগরিক এবং ক্রীড়াবিদদের টিকিটে ছাড় দেওয়ার জন্য রেলের ১৬৬৭ কোটি টাকা লোকসান হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির পর ট্রেনে যাত্রী সংখ্যা কমেছে। গড়ে রেল ৫০ শতাংশ ভ্রমণের খরচ বহন করছে। তার উপর বেশিরভাগ ট্রেনে ভাড়া কম। এই অবস্থায় ছাড় দেওয়া সম্ভব নয় বলেই দাবি করেছিলেন রেলমন্ত্রী। তারপরেই কেন্দ্রকে নিশানা করেন রাহুল গান্ধী।

বন্ধ করুন