বাড়ি > ঘরে বাইরে > বাচ্চা সমস্যায় পড়লে বাবা-মা কী ঋণ দেয় না খাবার- করোনা প্যাকেজ নিয়ে কেন্দ্রকে প্রশ্ন রাহুলের
রাহুল গান্ধী  (PTI)
রাহুল গান্ধী  (PTI)

বাচ্চা সমস্যায় পড়লে বাবা-মা কী ঋণ দেয় না খাবার- করোনা প্যাকেজ নিয়ে কেন্দ্রকে প্রশ্ন রাহুলের

রাহুল গান্ধী বলেন যে শহরাঞ্চলে অস্থায়ী ভাবে হলেও ন্যায় প্রকল্প চালু করা উচিত

বাচ্চা বিপদে পড়ে গেলে মা কি তাকে লোন দেয় না খাদ্য দেয়? এরকম সহজ ভাষায় করোনা অর্থনৈতিক প্যাকেজ নিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধলেন রাহুল গান্ধী। অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য মোট ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন নরেন্দ্র মোদী। ধাপে ধাপে সেই সংক্রান্ত ঘোষণা করছেন নির্মলা সীতারামন। কিন্তু সেই সকল ঘোষণায় কাজের কাজ কিছু হবে না, বলে মনে করছেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। 

রাহুল বলেন যে কেন্দ্রের কাজ মহাজন হওয়ার নয়, যে সকলকে ধার দেয়। তিনি বলেন যে লোনের জায়গায় সরাসরি টাকা দেওয়া উচিত। অস্থায়ী ভাবে শহুরে এলাকায় কংগ্রেসের ন্যায় প্রকল্প চালু করারও প্রস্তাব দেন তিনি। তিনি বলেন যে এখনই সক্রিয় না হলে একটা বড় রকমের আর্থিক সংকটের মোকাবিলা করবে ভারত।

তিনি বলেন যে কেন্দ্রের একটি জাতীয় রণনীতি দরকার আয়ের জন্য। কেন্দ্র যেভাবে অর্থের জোগান করছে বিভিন্ন সেক্টরের জন্য সেটা খারাপ নয় স্বীকার করেও রাহুল বলেন এখন প্রয়োজনীয়তা হল হাতে টাকার। উদাহরণস্বরূপ রাহুল বলেন বাচ্চা অসুস্থ হলে তাকে ঋণ নয়, খাদ্য দিতে হয়। রাহুল বলেন যে শহরে ন্যায় ও গ্রামে মনরেগার কাজ বৃদ্ধি করা উচিত। তবে এই মহামারীর সময় কংগ্রেস যে রাজনীতি করবে না, সেটাও সাফ করে দেন তিনি। 

রাহুল বলেন তিনি শুনেছেন যে ক্রেডিট এজেন্সিরা রেটিং কমাবে, সেই ভয়ে গরীবদের হাতে টাকা দিতে চাইছে না কেন্দ্র। সেটা নিয়ে তার যুক্তি হল যে ভারতের চাষি, শ্রমিক, ব্যবসায়ীরাই তো রেটিংটি  করে। তারা আবার কাজ শুরু করলে, রেটিং বাড়বে। 

এই মুহূর্তে অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে গেলে যে জ্বালানি লাগবে সেটি হল টাকা, বলে জানানকংগ্রেস সাংসদ। তিনি বলেন যে পরিকাঠামো বানানো দরকার, কিন্তু আপাতত প্রয়োজন গরীবের হাতে ক্যাশ দেওয়া। তবে ১৯৯১-এর আর্থিক সংকটের সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতির তুলনা টানতে রাজি হননি তিনি। 

 

বন্ধ করুন