দুর্ঘটনাস্থলের ছবি (সৌজন্য টুইটার)
দুর্ঘটনাস্থলের ছবি (সৌজন্য টুইটার)

মহারাষ্ট্রে মালগাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু ভিটেমুখী ১৬ পরিযায়ী শ্রমিকের

রেললাইন ধরে হেঁটে তাঁরা বাড়ি ফিরছিলেন বলে জানিয়েছেন এক পুলিশ আধিকারিক।

মালগাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল ১৬ জন পরিযায়ী শ্রমিকের। আহত হয়েছেন পাঁচজন। দুর্ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের কারমাডের কাছে। 

আরও পড়ুন : Lockdown 3.0: কেন্দ্র নাকি ৮৫% ভর্তুকি দিচ্ছে! কেরালা থেকে ৯১০ টাকার টিকিট কেটে ফিরলেন শ্রমিকরা

দক্ষিণ-মধ্য রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক জানিয়েছেন, শুক্রবার সকাল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ দুর্ঘটনাটি হয়েছে। খালি পেট্রোলিয়াম ওয়াগনের চালক সঙ্গে সঙ্গে রেল কর্তৃপক্ষকে খবর দেন। আরপিএফের সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। ঔরঙ্গাবাদের পুলিশ সুপার মোকশাদা পাতিল জানিয়েছেন, ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একজন গুরুতরভাবে আহত হয়েছে। বাকি যে চারজন প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন, তাঁদের কাউন্সেলিং করা হচ্ছে যাতে দুর্ঘটনার বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে পারি।’

শ্রমিকরা জালনার একটি স্টিল কারখানায় কাজ করতেন বলে রেলের তরফে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটা নাগাদ তাঁরা জালনা থেকে মধ্যপ্রদেশে নিজেদের ভিটের দিকে রওনা দেন। বদনাপুর পর্যন্ত তাঁরা রাস্তা ধরে হাঁটতে থাকেন। তারপর ঔরঙ্গাবাদের দিকে লাইন ধরে হাঁটতে থাকেন। ৩৬ কিলোমিটার মতো হাঁটার পর তাঁরা ক্লান্ত হয়ে পড়েন। বিশ্রাম নেওয়ার জন্য রেললাইনে বসেন। তারপর ঘুমিয়ে পড়েন।

আরও পড়ুন : বাংলাদেশ থেকে ১৬৮ জন পড়ুয়াকে ভারতে আনছে এয়ার ইন্ডিয়া

রেল মন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আজ সকালের দিকে কয়েকজন শ্রমিককে রেললাইনে দেখে চালক মালগাড়ি থামানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু শেষপর্যন্ত পারভানি-মানমাড শাখার বদনাপুর এবং কারমাড স্টেশনের মাঝে শ্রমিকদের ধাক্কা মারে মালগাড়িটি। আহতদের ঔরঙ্গাবাদ সিভিল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন : Containment Zones in Bengal: কমল কলকাতায়, বাড়ল উত্তর ২৪ পরগনায় - রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনের পুরো তালিকা দেখুন

মর্মান্তিক দুর্ঘটনা নিয়ে প্রত্যক্ষদর্শী রফিক শেখ বলেন, ‘সকাল ৫টা ১৫ মিনিট নাগাদ সাইরেনের পর ঔরঙ্গাবাদের দিক থেকে আসা মালগাড়ি থেমে যায়। থামার কারণ দেখতে গিয়ে চারিদিকে মৃতদের ছড়িয়ে-ছটিয়ে পড়ে থাকতে দেখি।’

আরও পড়ুন : Lockdown 3.0: ‘বাড়ি ফেরায় বাধা দেবেন না’, শ্রমিক ইস্যুতে RSS-এর শ্রমিক সংগঠনের তোপে কেন্দ্র

রেলের এক শীর্ষ আধিকারিক জানান, রেললাইন ধরে কয়েকজন হাঁটছিলেন। কয়েকজন লাইনের ধারে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। তিনি বলেন, ‘ব্যাগ নিয়ে কয়েকজন লাইনের উপর দিয়ে হাঁটছিলেন। ট্রেন আসার বিষয়টি তাঁদের নজরে পড়েনি।’ 

বন্ধ করুন