বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > এবার ওরাং জাতীয় উদ্যানের ছেঁটে ফেলা হবে রাজীব গান্ধীর নাম, সিদ্ধান্ত অসম সরকারের
ওরাং জাতীয় উদ্যানের গেট, ছবি সোজন্যে টুইটার
ওরাং জাতীয় উদ্যানের গেট, ছবি সোজন্যে টুইটার

এবার ওরাং জাতীয় উদ্যানের ছেঁটে ফেলা হবে রাজীব গান্ধীর নাম, সিদ্ধান্ত অসম সরকারের

  • অসমের ওরাং জাতীয় উদ্যান থেকে সরানো হবে রাজীব গান্ধীর নাম।

অসমের ওরাং জাতীয় উদ্যান থেকে সরানো হবে রাজীব গান্ধীর নাম। এদিন অসম মন্ত্রিসভায় এই সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই বিষয়ে পরিষদীয় মন্ত্রী পীযূষ হাজারিকা বলেন, 'আদিবাসী এবং চা-উপজাতি সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট সদস্যরা কয়েকদিন আগে এসে মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার সঙ্গে দেখা করে দাবি জানান যাতে ওরাং জাতীয় উদ্যান থেকে রাজীব গান্ধীর নাম সরানো হয়।'

ব্রহ্মপুত্রের উত্তর তীরে অবস্থিত ওরাং জাতীয় উদ্যানটি ৭৮.৮০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে। ১৯৮৫ সালে এটিকে বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য হিসেবে ঘোষণা করা হয়। পরে ১৯৯৯ সালে এটিকে জাতীয় উদ্যান হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ২০০৫ সালে অসমের তত্কালীন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ এই জাতীয় উদ্যানটিকে রাজীব গান্ধীর নামে নামকরণ করা হয়। তবে সেই সময় স্থানী আদিবাসীরা এই নামকরণের বিরোধিতা করা হয়েছিল।

ওরাং জাতীয় উদ্যানের নামকরণ হয়েছিল ওরাওঁ জনজাতির মানুষের নামে। এই জনজাতির মানুষরা অসম ছাড়াও ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ, ছত্তিশগড়ে বাস করে। এদিকে এই নামকরণ প্রসঙ্গে অসম টি ট্রাইব স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের নেতা ধীরজ গোয়ালা দাবি করেন, 'আমাদের তরফ থেকে এই জাতীয় উদ্যানের নাম বদলের দাবি ওঠানো হয়নি। তবে বিজেপি যে এটা করবে তা প্রত্যাশিত ছিল। পরবর্তীতে হয়ত আবার অসম সরকার গঠন করলে এই জাতীয় উদ্যানের নাম বদল করে দেবে।'

বন্ধ করুন