বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ওদের বাবাও আমাকে গ্রেফতার করতে পারবে না! IMA-কে পালটা চ্যালেঞ্জ রামদেবের
যোগগুরু বাবা রামদেব  (HT_PRINT)
যোগগুরু বাবা রামদেব  (HT_PRINT)

ওদের বাবাও আমাকে গ্রেফতার করতে পারবে না! IMA-কে পালটা চ্যালেঞ্জ রামদেবের

  • আইএমএ-র দাবি, ১৫ দিনের মধ্যে রামদেবকে তাঁর বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে, নয়ত তাঁর থেকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১০০০ কোটি টাকা দাবি করা হবে।

অ্যালোপ্যাথিকে অসম্মান করায় রামদেবের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন। আইএমএ-র দাবি, ১৫ দিনের মধ্যে রামদেবকে তাঁর বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে, নয়ত তাঁর থেকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১০০০ কোটি টাকা দাবি করা হবে। এবার এই প্রেক্ষিতে রামদেবও পালটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দাবি করলেন, কারও বাবার সাধ্যি নেই যে তাঁকে গ্রেফতার করে৷

প্রসঙ্গত, অ্যালোপ্যাথি ও অ্যালোপাথিক ডাক্তারদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে রামদেবকে গ্রেফতার করার দাবি ওঠে। সেই প্রেক্ষিতেই রামদেবের পালটা চ্যালেঞ্জ। ভাইরাল হওয়া এক ভিডিয়োতে রামদেবকে বলতে শোনা যায়, কারোর বাবার সাধ্যি নেই যে স্বামী রামদেবকে গ্রেফতার করতে পারবে। তবে ওরা শুধু চেল্লাচ্ছে। যা ইচ্ছে তাই বলছে। রামদেব চোর। রামদেবকে গ্রেফতার করা হোক। ওরা শুধু ট্রেন্ড অনুসরণ করতে আওয়াজ দিচ্ছে।

রামদেবকে মানহানির নোটিস পাঠিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন৷ তাঁর মন্তব্যের জন্য ১৫ দিনের মধ্যে তাঁকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি করেছে আইএমএ৷ তা না-করলে তাঁর থেকে ক্ষতিপূরণ বাবদ ২০০০ চিকিৎসককে মাথা পিছু ৫০ লক্ষ করে ১০০০ কোটি টাকা দাবি করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে ডাক্তারদের সংগঠন৷

এর আগে অ্যালোপ্যাথির বিরুদ্ধে করা মন্তব্য ফেরানোর জন্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন বলেন রামদেবকে। সেই সময় মন্তব্য প্রত্যাহার করে চিঠি দিলেও অ্যালোপ্যাথির বিরুদ্ধে 'লড়াই' চালিয়ে গিয়েছেন রামদেব। আধুনিক চিকিৎসাকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে ২৫টি প্রশ্নবাণ নিক্ষেপ করেন রামদেব।

রামদেবের প্রশ্ন, অনিদ্রায় যে ওষুধ খেতে হয় তার প্রভাব ৪-৬ ঘণ্টা থাকে, সে ওষুধেরও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে, অ্যালোপ্যাথিতে এর কোনও স্থায়ী সমাধান আছে? চশমা ব্যবহার করতে হবে না, কানে শোনার জন্য হিয়ারিং এইডও লাগবে না, এর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন সমাধান আছে? একবার ওষুধ খেলেই মাইগ্রেন, মাথা ব্যথা সেরে যাবে, এরকম কোনও অ্যালোপ্যাথিক ওষুধ আছে? অস্ত্রোপচার না করে হার্টব্লকেজের কী সমাধান রয়েছে এই চিকিৎসায় পদ্ধতিতে? এছাড়াও আরও একাধইক প্রশ্ন করেন রামদেব। যারপর রামদেবের বিরুদ্ধে ১০০০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করে আইএমএ।

 

বন্ধ করুন