বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > স্বস্তি HDFC ব্যাঙ্কের, ১৫ মাস পর উঠল RBI-র বিধিনিষেধ, মিলল এই কাজের অনুমতি
২০২০ সালের ডিসেম্বরে এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের উপর বিধিনিষেধ চাপানো হয়েছিল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে রয়টার্স)

স্বস্তি HDFC ব্যাঙ্কের, ১৫ মাস পর উঠল RBI-র বিধিনিষেধ, মিলল এই কাজের অনুমতি

  • ১৫ মাস পরে মিলল স্বস্তি।

এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের উপর থেকে যাবতীয় বিধিনিষেধ তুলে নিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (আরবিআই)। তার ফলে নয়া ডিজিটাল কর্মসূচির আওতায় বিভিন্ন প্রকল্প চালু করার পথে আর কোনও বাধা থাকল না বলে বেসরকারি ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে।

শনিবার একটি বিবৃতিতে এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের তরফে বলা হয়েছে, ‘আমরা সবাইকে জানাতে চাই যে ডিজিটাল ২.০ কর্মসূচি আওতায় ব্যবসা সংক্রান্ত যে কর্মকাণ্ড আছে, তার উপর থেকে বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (আরবিআই)।’ ব্যাঙ্কের যে ডিজিটাল ২.০ প্রোগ্রামের আওতায় ডিজিটাল ক্ষেত্রের জন্য একাধিক পরিকল্পনা করা হয়েছে।

২০২০ সালের ডিসেম্বরে এইচডিএফসি ব্যাঙ্ককে সাময়িকভাবে নয়া ক্রেডিট কার্ড প্রদান এবং নয়া ডিজিটাল কর্মকাণ্ড চালু করতে নিষেধ করেছিল ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক। একাধিকবার প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে পরিষেবা ব্যাহত হওয়ায় সেই বিধিনিষেধ জারি হয়েছিল। সেইসময় বেসরকারি ব্যাঙ্কের তরফে বলা হয়েছিল, ‘প্রাথমিক তথ্যভাণ্ডারে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে গত ২১ নভেম্বর ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং এবং লেনদেনের ব্যবস্থায় সমস্যা-সহ গত দু'মাসে ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং বা মোবাইল ব্যাঙ্কিং বা ব্যাঙ্কের লেনদেনের মাধ্যমগুলিতে কয়েকটি বিভ্রাটের ঘটনায় ২ ডিসেম্বর এইচডিএফসি ব্যাঙ্ককে একটি নির্দেশ জারি করেছে আরবিআই।’ 

সেই পরিস্থিতিতে একাধিক পদক্ষেপ করে এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক। সেই পদক্ষেপের জন্য আট মাস পর ক্রেডিট কার্ড প্রদানের উপর থেকে তুলে নেওয়া হয় আরবিআইয়ের নিষেধাজ্ঞা। তবে ডিজিটাল কর্মকাণ্ডের উপর যে নিষেধাজ্ঞা ছিল, তা থেকে মুক্তি মেলেনি। অবশেষে মার্চে সেই বিধিনিষেধ তোলা হয়েছে বলে দাবি করেছে এইচডিএফসি। শনিবার ব্যাঙ্কের তরফে বলা হয়েছে, ‘আমাদের গ্রাহকদের পরিবর্তনশীল প্রয়োজনীয়তার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে এই সময়টা স্বল্প, মাঝারি এবং দীর্গকালীন পরিকল্পনা তৈরির জন্য ব্যবহার করেছি আমরা। আগামিদিনে আমরা সেইসব কর্মসূচি চালু করব।’

বন্ধ করুন