বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রধানমন্ত্রী ও VVIP-দের জন্য রাস্তা, ফুটপাত পরিষ্কার, তবে সবার জন্য নয় কেন: HC

প্রধানমন্ত্রী ও VVIP-দের জন্য রাস্তা, ফুটপাত পরিষ্কার, তবে সবার জন্য নয় কেন: HC

প্রধানমন্ত্রী ও VVIP-দের জন্য রাস্তা, ফুটপাত পরিষ্কার, তবে সবার জন্য নয় কেন: HC

VVIP বেঞ্চ জানিয়েছে, রাজ্য বারবার ফুটপাতের অবৈধ হকারদের সমস্যার সমাধান নিয়ে চিন্তাভাবনা করে, কিন্তু এবার এই বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য ভিভিআইপি-দের জন্য যখন এক দিনের জন্য রাস্তাগুলি পরিষ্কার করা যায়, তখন প্রতিদিনের জন্যও কেন তা করা যাবে না? এই প্রশ্ন তুলেছে বোম্বে হাইকোর্ট। বিচারপতি এম এস সোনাক ও কমল খাতার ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছেন, পরিষ্কার ফুটপাত এবং নিরাপদ হাঁটার জায়গা প্রতিটি ব্যক্তির মৌলিক অধিকার। রাজ্য প্রশাসনেরও এ বিষয়ে দায়িত্ব রয়েছে।

বেঞ্চ জানিয়েছে, রাজ্য বারবার ফুটপাতের অবৈধ হকারদের সমস্যার সমাধান নিয়ে চিন্তাভাবনা করে, কিন্তু এবার এই বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে।

গত বছর বোম্বে হাইকোর্ট স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে শহরের অবৈধ হকারদের সমস্যা নিয়ে তদন্ত শুরু করে। সোমবার বেঞ্চ জানিয়েছে, সমস্যা বড় হলেও, রাজ্য ও অন্যান্য কর্তৃপক্ষ, সহ পৌরসংস্থা, এটি এড়িয়ে যেতে পারে না এবং কঠোর পদক্ষেপের প্রয়োজন।

আরও পড়ুন। ‘নমনীয়’ ও ‘চাপ’ কমাতে পরীক্ষা ব্যবস্থা পরিবর্তনের ইঙ্গিত ধর্মেন্দ্র প্রধানের

বেঞ্চ বলে, ‘প্রধানমন্ত্রী বা কোনও ভিভিআইপি এলে রাস্তাগুলি পরিষ্কার করা হয়...এটি তখনই করা হয়। তবে সবার জন্য কেন তা করা যাবে না? নাগরিকরা করদাতা...তাদের পরিষ্কার ফুটপাত এবং নিরাপদ হাঁটার জায়গা প্রয়োজন।’

আদালত আরও বলে, ‘ফুটপাত এবং নিরাপদ হাঁটার জায়গা মৌলিক অধিকার। আমরা আমাদের সন্তানদের ফুটপাথে হাঁটতে বলি, কিন্তু হাঁটার মতো ফুটপাত না থাকলে, আমরা তাদের কী বলব?’ 

আদালত উষ্মা প্রকাশ করে জানায়, বছরের পর বছর ধরে কর্তৃপক্ষ বলে আসছে যে তারা সমস্যার সমাধানে কাজ করছে, কিন্তু বাস্তবে তার চিহ্ন মেলে না। হাইকোর্ট বলেছে, ‘রাজ্যকে কিছু কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে। কর্তৃপক্ষ চিরকাল খালি কী করতে হবে তা নিয়ে চিন্তাভাবনা করতে পারে না। যদি ইচ্ছা থাকে, তাহলে উপায়ও থাকবে।’

বৃহন্মুম্বাই পৌরসংস্থার পক্ষ থেকে সিনিয়র কাউন্সেল এস ইউ কামদার বলেন, এই ধরনের হকারদের বিরুদ্ধে সময়ে সময়ে পদক্ষেপ নেওয়া হয়, কিন্তু তারা আবার ফিরে আসে। তিনি জানান, বি এম সি ভূগর্ভস্থ বাজার তৈরির কথাও বিবেচনা করছে।

এ প্রসঙ্গে আদালত ব্যাঙ্গ করে মন্তব্য করে, পৌরসংস্থা এই সমস্যাটি আক্ষরিক অর্থে মাটির নিচে পুঁতে ফেলার চেষ্টা করছে।

বেঞ্চ উল্লেখ করেছে, পৌরসংস্থার আরোপিত জরিমানা এই হকারদের জন্য কোনও ব্যাপার নয় কারণ তাদের দৈনিক বিক্রির পরিমাণ অনেক বেশি।

আদালত বলে, ‘আপনার জরিমানা তাদের কাছে সামান্য। তারা তা প্রদান করবে এবং চলে যাবে’।

আদালত বি এম সি-কে সমস্ত হকারদের শনাক্ত করতে একটি ডেটাবেস তৈরি করার পরামর্শ দেয় যাতে তারা আদেশ লঙ্ঘন না করে এবং পুনরায় তাদের স্টল নিয়ে ফিরে না আসে।

আদালত বলে, ‘একটি চিরুনি অভিযান শুরু করুন। একটি রাস্তায় শুরু করুন...সবচেয়ে বড় সমস্যা হল শনাক্তকরণ। তারা পুনরায় ফিরে আসে কারণ তারা চিহ্নিত করা যায় না’।

 

 

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

‘বিচক্ষণ রায়’, কোটা কমে ৭% হতেই বললেন হাসিনারা, 'চোখ বেঁধে…’, ভয়ংকর দাবি ইসলামের পাড়ার বৌদির ছবি গোপনে তোলায় মামলা গড়ায় কলকাতা হাইকোর্টে, তারপর কী ঘটল?‌ পূণ্যযাত্রার পথে থাকা দোকানে নাম লিখতে হবে, যোগী সরকারের নির্দেশে আপত্তি শরিকদের খুনের চেষ্টার খবর পেয়ে তাঁকে ‘বিউটিফুল নোট’ পাঠিয়েছেন শি জিনপিং! বললেন ট্রাম্প ‘শান্তিপ্রিয়' বাংলাদেশ জ্বলছে! কোটার বিরোধী আন্দোলনে মৃত ১৬১ জন, মন কাঁদছে দেবের কোহলি প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য নিয়ে অমিত মিশ্রকে জড়িয়ে জলঘোলা হচ্ছে- ক্ষুব্ধ শামি ‘ওদের এত অহংকার কীসের? সব তো চূর্ণ হবে…’ রাহুলকে নিশানা করলেন শাহ ‘‌বুকে রক্ত থাকতে বিজেপির সঙ্গে তৃণমূল হাত মেলাবে না’‌, মঞ্চ থেকে হুঙ্কার মমতার মেয়েদের যৌনতার পাঠ দিয়েছেন? সুস্মিতা বলছেন, ‘ওরা ইতিমধ্যেই PhD, শুধু বলেছি…' 'মমতাকে অধিকারটা কে দিয়েছে?', অসহায় বাংলাদেশি আশ্রয় দেব বলায় রেগে কাঁই মালব্য

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.