বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ক্ষুধার্ত হলে বিনামূল্যে মিলবে বিরিয়ানি, কোয়েম্বাতুরের রাস্তায় মানবিকতার দুর্লভ নিদর্শন
কোয়েম্বাতুরের সেই বিরিয়ানির স্টল (সৌজন্যে আরজে বালাজি/টুইটার)
কোয়েম্বাতুরের সেই বিরিয়ানির স্টল (সৌজন্যে আরজে বালাজি/টুইটার)

ক্ষুধার্ত হলে বিনামূল্যে মিলবে বিরিয়ানি, কোয়েম্বাতুরের রাস্তায় মানবিকতার দুর্লভ নিদর্শন

  • কোয়েম্বাতুরের রাস্তার ধারে একটি স্টলে বিক্রি হচ্ছে বিরিয়ানি। এবং সেই ছবিটি সম্প্রতি ভাইরাল হয় টুইটারে। কারণ, ক্ষুধার্ত হলে সেখানে বিনামূল্যে মিলবে বিরিয়ানি।

'যেখানে যেখানে মানুষ থাকে, সেখানেই দয়া দেখানোর সুযোগ রয়েছে।' কয়েকশো বছর আগে এই উক্তিটি করে গিয়েছিলেন রোমান দার্শনিক লুসিয়াস আনায়েস সেনেকা। বর্তমান বিশ্বে অবশ্য এই উক্তিটি সবার কাছে বিশ্বাসযোগ্য নাও হতে পারে। তবে এই উক্তিটিকেই সত্যি প্রমাণিত করলেন তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাতুর শহরের এক বিরিয়ানি বিক্রেতা।

কোয়েম্বাতুরের রাস্তার ধারে একটি স্টলে বিক্রি হচ্ছে বিরিয়ানি। এবং সেই ছবিটি সম্প্রতি ভাইরাল হয় টুইটারে। কারণ, বিরিয়ানির দোকানের বইরেই একটি বোর্ডে লেখা, আপনি কি ক্ষুধার্ত, তাহলে ভালোবাসার সঙ্গে নিয়ে যান। বিরিয়ানির এই স্টলের ছবিটি সম্প্রতি টুইটারে পোস্ট করেন রেডিও জকি তথা অভিনেতা বালাজি। এরপরই মানবিকতার এই নিদর্শনে মুগ্ধ নেট দুনিয়া। ভাইরাল হয়ে যায় পোস্টটি।

ভাইরাল হওয়া টুইটে দু'টি ছবি রয়েছে। একটি স্টলের। অপরটি স্টলের পাশে থাকা একটি বোর্ডের, যাতে তামিলে লেখা, আপনি কি ক্ষুধার্ত, তাহলে ভালোবাসার সঙ্গে নিয়ে যান। ছবিগুলি পোস্ট করে বালাজি ক্যাপশনে লেখেন, 'কোয়েম্বাতুরের পুলিয়াকুলামের রাস্তার ধারের এই ছোট্ট বিরিয়ানির দোকানটি কত বড় সঙ্কেত! মানবতার সেরা উদাহরণ।'

এই পোস্টটি ইতিমধ্যে ২৩ হাজার লাইক পেয়ে গিয়েছে। এখনও মানুষের মন জয় করছে মানবতার এই জ্বলন্ত উদাহরণ। নেটিজেনদের আশীর্বাদ পাচ্ছেন কোয়েম্বাতুরের সেই বিরিয়ানি বিক্রেতা। সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু মানুষ প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন সেই বিরিয়ানি বিক্রেতাকে। এক টুইটার ব্যবহারকারী পোস্টটিতে কমেন্ট করেছেন, 'সুপার, খুব ভালো কাজ'। আরও একজন লিখিছেন, ঈশ্বর তাঁকে আশীর্বাদ করুক। অপর এক টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, সত্যিকারের মানুষ, সত্যি উদার।

 

বন্ধ করুন