বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Russia-Ukraine Crisis: থামল রক্তপাত, ইউক্রেন ‘যুদ্ধের’ মধ্যে উত্থান বাজারের, ‘গ্রিনে’ থাকল অনেক সংস্থা
বৃহস্পতিবারের ধাক্কা কাটিয়ে শুক্রবার ঘুরে দাঁড়াল বাজার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

Russia-Ukraine Crisis: থামল রক্তপাত, ইউক্রেন ‘যুদ্ধের’ মধ্যে উত্থান বাজারের, ‘গ্রিনে’ থাকল অনেক সংস্থা

  • 'লাল' রং পালটে 'সবুজ' (গ্রিন) হল অনেক সংস্থা।

বৃহস্পতিবারের ধাক্কা কাটিয়ে শুক্রবার ঘুরে দাঁড়াল বাজার। ইউক্রেনের ‘যুদ্ধের’ মধ্যে ঊর্ধ্বমুখী হল সেনসেক্স এবং নিফটি। সেইসঙ্গে একাধিক সংস্থার শেয়ারের ‘লাল’ রং পরিণত হল ‘সবুজে’।

শুক্রবার বাজার খুলতেই ঊর্ধ্বমুখী হয় সেনসেক্স। প্রাথমিকভাবে ১,০০০ পয়েন্টের বেশি উঠে যায়। ছাড়িয়ে যায় ৫৬,০০০ পয়েন্টের গণ্ডি। আপাতত ১,৪৮৫.৬৫ পয়েন্ট বা ২.৭২ শতাংশ বেড়ে ঠেকেছে ৫৬,০১৫.৫৬ পয়েন্টে। বৃহস্পতিবার রাশিয়ার ‘সামরিক অভিযানের’ ঘোষণার পর বাজারে ধস নেমেছিল। ২,৭০০ পয়েন্ট পতনের জেরে বৃহস্পতিবার বাজার বন্ধের সময় সেনসেক্স ৫৪,৫২৯.৯১ পয়েন্টে ঠেকেছিল সেনসেক্স। ৪.৭৮ শতাংশ বা ৮১৫.৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছিল ১৬.২৪৭.৯৫-তে দাঁড়িয়েছিল নিফটি। সেই ধাক্কা কাটিয়ে শুক্রবার নিফটিও ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আপাতত ৪৭৭.৩৫ পয়েন্ট বা ২.৯৪ শতাংশ বেড়ে নিফটি ঠেকেছে ১৬,৭২৪ পয়েন্টে।

বৃহস্পতিবার সকালে ভারতে বাজার খোলার ঠিক আগেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেন যে ইউক্রেনে ‘সামরিক অভিযান’ চালানো হবে। তার জেরে বিশ্ব বাজারে বেড়ে গিয়েছিলে অপরিশোধিত তেল এবং সোনার দাম। ভারতের বাজারেও রেকর্ড বৃদ্ধি হয়েছিল সোনার। ‘যুদ্ধের’ জেরে যে উদ্বেগ তৈরি হয়, তার প্রভাব পড়েছিল বিভিন্ন সংস্থার শেয়ারে। বড়সড় ক্ষতির মুখে পড়েছিল একাধিক সংস্থা। বাজার খোলার প্রথম এক ঘণ্টায় আট লাখ কোটি টাকা লোকসান হয়েছিল বিনিয়োগকারীদের। ধাক্কা খেয়েছিল টাটা মোটর্স, ইনডাসল্যান্ড ব্যাঙ্ক, ইউপিএল গ্র্যাসিম ইন্ডাস্ট্রিজ, আদানি পোর্টের মতো সংস্থা। সার্বিকভাবে পতনের সাক্ষী ছিল ৩,০৮৪ টি সংস্থার শেয়ার। মাত্র ২৪০ টি সংস্থার শেয়ার উঠেছিল। ৬৯ টি সংস্থার শেয়ারের কোনও হেরফের হয়নি। শুক্রবার অবশ্য বাজার খোলার পরই সেনসেক্সে সব সংস্থার 'লাল' রং পালটে 'সবুজ' হয়ে যায়। অর্থাৎ উত্থান হয়েছে অনেক সংস্থার শেয়ারের।

বন্ধ করুন