বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ইউক্রেন নিয়ে উদ্বিগ্ন পোপ ফ্রান্সিস, প্রোটোকল ভেঙে নিজেই গেলেন রাশিয়ার দূতাবাসে

ইউক্রেন নিয়ে উদ্বিগ্ন পোপ ফ্রান্সিস, প্রোটোকল ভেঙে নিজেই গেলেন রাশিয়ার দূতাবাসে

পোপ ফ্রান্সিস (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)

রীতি ভেঙে নিজেই রাশিয়ার দূতাবাসে চলে যান পোপ ফ্রান্সিস।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন নিয়ে উদ্বিগ্ন গোটা বিশ্ব। এই আবহে এবার সব প্রোটোকল ভেঙে রাশিয়ার দূতাবাসে পৌঁছে গেলেন ভ্যাটিকানের পোপ ফ্রান্সিস। সাধারণত কোনও রাষ্ট্রদূত বা রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে দেখা করতে হলে ভ্যাটিকানেই সেই বৈঠক করেন পোপ। রীতি অনুযায়ী, ভ্যাটিকানের বিদেশমন্ত্রী রাষ্ট্রদূতদের ডেকে পাঠাতে পারেন। তবে এই রীতি ভেঙে নিজেই রাশিয়ার দূতাবাসে চলে যান পোপ ফ্রান্সিস।

জানা গিয়েছে, রাশিয়ার দূতাবাসে গিয়ে ইউক্রেনের উপর রাশিয়ার হামলার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন পোপ। দূতাবাসে তিনি প্রায় আধ ঘণ্টা ছিলেন। ভ্যাটিকানের হোলি সি-এর প্রেস অফিস জানায়, দূতাবাসে রুশ রাষ্ট্রদূতকে নিজের উদ্বেগের কথা স্পষ্ট ভাষায় জানান পোপ ফ্রান্সিস। পাশাপাশি তিনি জানান, ইউক্রেনে শান্তি স্থাপনের লক্ষ্যে পোপ উপবাস করতে চলেছেন আগামী বুধবার।

পোপ ফ্রান্সিস বার্তা দেন, ‘প্রতিটি যুদ্ধ বিশ্বকে আরও ভঙ্গুর করে তোলে। যুদ্ধ হল রাজনীতি ও মানবতার ব্যর্থতার ফল। যুদ্ধ লজ্জাজনক। এটা অশুভ শক্তির সামনে এক বিস্ময়কর পরাজয়।’ এদিকে যুদ্ধ বন্ধের বার্তা দিলেও সরাসরি রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনও কথা বলেননি পোপ ফ্রান্সিস। বিশেষজ্ঞদের অনেকেরই মত, রাশিয়ান অর্থোডক্স চার্চের বিরোধিতার আশঙ্কায় পুরোপুরি মুখ খোলেননি পোপ ফ্রান্সিস। এদিকে বুধবার ভূমধ্যসাগরীয় বিশপ ও মেয়েদের একটি সভায় সভাপতিত্ব করার কথা ছিল পোপের। তবে হাঁটুর ব্যথার কারণে নাকি সেই সভায় তিনি যেতে পারবেন না। যদিও সেদিনই ইউক্রেনের শান্তি কামনা করে উপবাস করবেন পোপ ফ্রান্সিস।

বন্ধ করুন