বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘ওয়াইন আর মদ এক নয়’, ফড়নবীশের ‘মদ্য-রাষ্ট্র’ কটাক্ষের পাল্টা মন্তব্য রাউতের
শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

‘ওয়াইন আর মদ এক নয়’, ফড়নবীশের ‘মদ্য-রাষ্ট্র’ কটাক্ষের পাল্টা মন্তব্য রাউতের

  • এর আগে ফড়নবীশ বলেছিলেন, ‘আমরা মহারাষ্ট্রকে মদ্য-রাষ্ট্র হতে দেব না। সরকারের অগ্রাধিকার হল মদ বিক্রির প্রচার করা।’

সম্প্রতি মহারাষ্ট্র সরকার সিদ্ধান্ত নেয় যে এবার থেকে সুপারমার্কেট ও ‘ওয়াক ইন’ স্টোরেও বিক্রি হবে ওয়াইন। আর এরপরই এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় সরবহ হয়েছিল বিজেপি। মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবীশ মন্তব্য করেন, ‘উদ্ধব ঠাকরে মহারাষ্ট্ররে মদ্য-রাষ্ট্রে পরিণত করতে চান।’ আর ফড়নবীশের এহেন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে এবার পাল্টা তোপ দাগলেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত। তাঁর বক্ত্য, ‘ওয়াইন আর মদ এক নয়।’

সঞ্জয় রাউত বলেন, ‘ওয়াইন মদ নয়। রাজ্যে ওয়াইন বিক্রি বাড়লে চাষিরা লাভবান হবেন। কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করতে আমরা এটা করেছি। বিজেপি কেবল সব পদক্ষেপের বিরোধিতা করে। কিন্তু কৃষকদের জন্য কিছুই করে না।’ এর আগে ফড়নবীশ বলেছিলেন, ‘আমরা মহারাষ্ট্রকে মদ্য-রাষ্ট্র হতে দেব না। মহামারীর দুই বছরে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস সরকার মানুষকে সাহায্য করার জন্য কিছুই করেনি এবং এখন তাদের অগ্রাধিকার হল মদ বিক্রির প্রচার করা।’

এর আগে বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের মন্ত্রিসভা রাজ্য জুড়ে সুপারমার্কেট এবং ওয়াক-ইন স্টোরগুলিতে ৫০০০ টাকার বার্ষিক লাইসেন্সিং ফির বিনিময়ে ওয়াইন বিক্রির প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। এই পদক্ষেপের লক্ষ্য ভারতীয় ওয়াইনারিগুলির জন্য আরও বিপণনের বাজার খুলে দেওয়া। সারা দেশে ১১০টি ওয়াইনারি রয়েছে। তার মধ্যে ৭২টি মহারাষ্ট্রে রয়েছে। এর মধ্যে ৪০ থেকে ৪৫টি চালু রয়েছে। তবে এর মধ্যে মাত্র ১৫ থেকে ২০টি ওয়াইনারি সরাসরি বিপণনের সাথে জড়িত। বাকি ওয়াইনারিগুলি চুক্তি উত্পাদনের সাথে জড়িত।

বন্ধ করুন