বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'সংস্কৃতের সঙ্গে ধর্মের ব্যাপার নেই,' সংস্কৃতে শপথ অসমের বিধায়ক করিমুদ্দিনের
প্রাচীন নানা পুঁথিতে সংস্কৃত ভাষার উল্লেখ দেখা যায় (প্রতীকী ছবি)
প্রাচীন নানা পুঁথিতে সংস্কৃত ভাষার উল্লেখ দেখা যায় (প্রতীকী ছবি)

'সংস্কৃতের সঙ্গে ধর্মের ব্যাপার নেই,' সংস্কৃতে শপথ অসমের বিধায়ক করিমুদ্দিনের

  • সব ভাষার মা হল সংস্কৃত। সেই মাকে কার্যত সম্মান জানালেন অসমের অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্টের বিধায়ক

দেবভাষা বলে পরিচিত সংস্কৃত। অসমের শাসকদল বিজেপির বিধায়কদের অনেকেই শপথ নিয়েছেন সংস্কৃতে। কিন্তু বিরোধী দল অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্টের বিধায়ক করিমুদ্দিন বরভুঁইয়া নজর কাড়লেন সবথেকে বেশি। রাজনৈতিক মহলের মতে, যাঁদের সঙ্গে প্রো বাংলাদেশি তকমা জুড়ে দিয়েছিল বিজেপি সেই বিরোধী দলের বিধায়কই কার্যত নজির তৈরি করলেন। মুসলিম ধর্মাবলম্বী বিধায়ক করিমুদ্দিন বরভুঁইয়া এবার শপথ নিলেন সংস্কৃতে। এই দুর্লভ দৃশ্যের সাক্ষী থাকল অসম বিধানসভা। ভাষার সঙ্গে ধর্মের যে সম্পর্ক নেই একথা আরও একবার কার্যত প্রমাণ করার চেষ্টা করলেন তিনি।

তিনি বলেন, সব ভাষার মা হল সংস্কৃত। আমার মাতৃভাষা বাংলা। আমি এমন একটা রাজ্যে বাস করি যেখানকার অফিসিয়াল ভাষা অসমিয়া। অসমিয়া ও বাংলারও মা হল সংস্কৃত। শপথ গ্রহণ আমার কাছে বিশেষ ব্যাপার। এটা আমার জীবনের প্রথম অভিজ্ঞতা। আমি এই সময়টাকে স্পেশাল করতে চেয়েছি, সেকারেণেই প্রাচীন এই ভাষায় শপথ নিয়েছি। তিনি আরও বলেন, আমার ধর্ম আমায় শিক্ষা দিয়েছে সংস্কৃতিকে সম্মান জানাতে। আমি ভারতবাসীকে বলতে চাই বিভেদের মধ্যে ঐক্যই ভারতের মূল শক্তি। আমি মনে করিনা সংস্কৃতের সঙ্গে ধর্মের কোনও ব্যাপার রয়েছে। প্রসঙ্গত গত বছর কংগ্রেস বিধায়ক সাকিল আহমেদ খানও সংস্কৃতে শপথ নিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন। 

 

বন্ধ করুন