বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Savarkar row in Karnakata: বুলবুল পাখির ডানায় চেপে সাভারকর বের হতেন জেল থেকে! পাঠ্যপুস্তকের দাবি ঘিরে শোরগোল

Savarkar row in Karnakata: বুলবুল পাখির ডানায় চেপে সাভারকর বের হতেন জেল থেকে! পাঠ্যপুস্তকের দাবি ঘিরে শোরগোল

বিনায়ক দামোদর সাভারকার।. (Hindustan Times) (HT_PRINT)

যে লাইনটি ভাইরাল হয়েছে, সেখানে লেখা রয়েছে, ' যেখানে সাভারকার বন্দি ছিলেন সেই ঘরে একটিও চাবি লাগানোর ছিদ্রও ছিল না। কিন্তু একটা বুলবুল পাখি কোথাও থেকে আসত ঘরের মধ্যে। সাভারকার তার ডানায় বসতেন, আর সে সাভারকারকে নিয়ে যেত তাঁর মাতৃভূমি দেখাতে।'

একের পর এক বিতর্কের রেশ কার্যত থামছে না বিজেপি শাসিত কর্ণাটক থেকে। সেখানে এবার এক পাঠ্যপুস্তকের বইয়ের লাইন ভাইরাল হতে শুরু করেছে। যে স্কুল পাঠ্যপুস্তকে লেখা রয়েছে, বুলবুল পাখির ডানায় ভর করে সাভারকার বের হতেন জেল থেকে। উল্লেখ্য, হিন্দুত্ববাদের আদর্শের অন্যতম প্রতিভূ হিসাবে পরিচিতি রয়েছে বিনায়ক সাভারকারের। তাঁর সম্পর্কে বিজেপি শাসিত রাজ্যের পাঠ্যপুস্তকে এই তথ্য ঘিরে নতুন করে রাজনৈতিক বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

কংগ্রেস বলছে, ' সাভারকরকে নায়কের মতো দেখাতে কর্ণাটকের আঞ্চলিক চ্যানেলগুলিতে যে ভুল তথ্য এবং ঐতিহাসিক তথ্যের বিকৃতি চলছে তা একেবারেই অযৌক্তিক। টিআরপির জন্য যা ইচ্ছে তাই?' কংগ্রেসের তরফে প্রিয়াঙ্কা খার্গে এই মন্তব্য করে টুইট করেন। উল্লেখ্য, যে লাইনটি ভাইরাল হয়েছে, সেখানে লেখা রয়েছে, ' যেখানে সাভারকার বন্দি ছিলেন সেই ঘরে একটিও চাবি লাগানোর ছিদ্রও ছিল না। কিন্তু একটা বুলবুল পাখি কোথাও থেকে আসত ঘরের মধ্যে। সাভারকার তার ডানায় বসতেন, আর সে সাভারকারকে নিয়ে যেত তাঁর মাতৃভূমি দেখাতে।' উল্লেখ্য, পাঠ্যপুস্তকে এই গল্পের লেখক তাঁর আন্দামান ভ্রমণের কাহিনি বর্ণনা করছেন। সেখানে আন্দামানের বিখ্যাত সেলুলার জেল দেখার কথা তিনি লিখেছেন। সেই প্রসঙ্গেই উঠে আসে বিনায়ক সাভারকারের নাম। আর সেখানেই তিনি একথা লেখেন। 'কমিউনিস্ট সরকার হিন্দু মন্দিরের নিয়ন্ত্রণ চায়', ইন্দু মালহোত্রার ভিডিয়ো ভাইরাল

এর আগে কর্ণাটক সরকারের আওতাধীন স্কুলের পাঠ্যপুস্তকে 'ব্লাডগ্রুপ' নামে একটি বই রাখা হয়। তবে বাসবরাজ বোম্মাই সরকার আসার পর সেই বই পাল্টে দেয় সিলেবাস সংক্রান্ত নতুন কমিটি। নয়া সিলেবাসে আসে 'কালাভান্নু গোড্ডাভারু' বইটি। সেই বইতেই এই তথ্য তুলে ধরা হয়। উল্লেখ্য, সিলেবাসকে কেন্দ্র করে বিজেপি বনাম কংগ্রেস রাজনৈতিক দ্বন্দ্বে তোলপাড় কর্ণাটক। বিজেপি পাল্টা প্রশ্ন তুলেছে, অধ্যাপক বারাঙ্গুরুর রামাচন্দ্রপ্পার নেতৃত্বাধীন কমিটি ২০১৬ সালে ১৫০ টি ভুল ও প্রচুর তথ্যে ভুল থাকা বই কীভাবে স্কুলের জন্য অনুমোদন করেছে, তা নিয়ে। তৎকালীন কর্ণাটকের সরকারে থাকা কংগ্রেসের দিকে সেই দিক থেকে আঙুল তুলেছে বিজেপি।

বন্ধ করুন