বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'KYC আপডেট করুন', মেসেজের লিঙ্কে ক্লিক করলেই উধাও হয়ে যাচ্ছে SBI গ্রাহকদের টাকা
প্রতারণা চক্রের ফাঁদ পাতা হয়েছে চিন থেকে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
প্রতারণা চক্রের ফাঁদ পাতা হয়েছে চিন থেকে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

'KYC আপডেট করুন', মেসেজের লিঙ্কে ক্লিক করলেই উধাও হয়ে যাচ্ছে SBI গ্রাহকদের টাকা

  • সেই প্রতারণা চক্রের ফাঁদ পাতা হয়েছে চিন থেকে।

নিজের কেওয়াইসি তথ্য আপডেট করুন। তাতে থাকছে একটি লিঙ্ক। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার (এসবিআই) নামে আসা সেই মেসেজের লিঙ্কে ভুলেও ক্লিক করবেন না। তাহলে মুহূর্তের মধ্যে আপনার অ্যাকাউন্টে সব টাকা উধাও হয়ে যাবে। আর সেই প্রতারণা চক্রের ফাঁদ পাতা হয়েছে চিন থেকে। দিল্লির সাইবারপিস ফাউন্ডেশন এবং অটোবুট ইনফোসেকের রিপোর্ট উদ্ধৃত করে কয়েকটি প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়েছে। 

কীভাবে হচ্ছে সেই প্রতারণা? কয়েকটি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দুই সংস্থার জানিয়েছে যে ভারতের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের নিশানা করেছে চিনা হ্যাকাররা। গ্রাহকদের ফোনে ‘update your KYC’ মেসেজ পাঠানো হচ্ছে। তাতে একটি লিঙ্ক থাকছে। সেই লিঙ্কে ক্লিক করলে গ্রাহকদের একটি নয়া পেজে খুলে যাবে। সেখানে ক্যাপচা কোডের পাশাপাশি ‘ইউজারনেম’, ‘পাসওয়ার্ড’-এর মতো গোপনীয় তথ্য জানতে চাওয়া হয়। সাইবার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সেই তথ্য দিলেই গ্রাহকের ফোনে একটি ‘ওটিপি’ (OTP) আসবে। ‘ওটিপি’ দিলে নয়া একটি পেজ খুলে যাবে। তাতে আবার অ্যাকাউন্ট নম্বর, মোবাইল নম্বর, জন্মতারিখের মতো বিভিন্ন গোপনীয় তথ্য জানতে চাওয়া হয়। সেই তথ্য দেওয়ার পর আবারও একটি ‘ওটিপি’ আসবে। তারপর অ্যাকাউন্টের পুরো টাকা সাফ হয়ে যাবে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, এসবিআই গ্রাহকদের ৫০ লাখ টাকার পুরস্কার দেওয়ারও দাবি করছে হ্যাকাররা। লিঙ্কে ক্লিক করানোর জন্য সেই পুরস্কারমূল্যের টোপ দেওয়া হয়েছে। সেই ফাঁদে পা দিলেই গ্রাহকদের জীবনভরের সঞ্চয় এক লহমায় উধাও হয়ে যাবে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এসবিআই এরকম কোনও পুরস্কারের অফার দিচ্ছে না। যদি দেওয়া হত, তা স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে উল্লেখ থাকত। সেইসঙ্গে তাঁরা জানিয়েছেন, থার্ড-পার্টি ডোমেনের মাধ্যমে প্রতারণা চক্র চালানো হচ্ছে। ইউআরএলে সামান্য হেরফের করা হচ্ছে। একই কায়দায় আইডিএফসি, পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক, ইন্ডাসল্যান্ড এবং কোটাক ব্যাঙ্কের গ্রাহকদেরও সর্বস্ব লুট করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন