বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাঁচ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে SBI-র ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, YONO, জেনে নিন সময়
আবারও কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকতে চলেছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার (এসবিআই) নেট ব্যাঙ্কিং-সহ একগুচ্ছ পরিষেবা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

পাঁচ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে SBI-র ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, YONO, জেনে নিন সময়

  • দেখে নিন সময়।

আবারও কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকতে চলেছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার (এসবিআই) নেট ব্যাঙ্কিং-সহ একগুচ্ছ পরিষেবা। ভারতের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের তরফে জানানো হয়েছে, আগামিকাল (শনিবার) রাত ১১ টা ৩০ মিনিট থেকে রবিবার ভোর ৪ টে ৩০ মিনিট পর্যন্ত ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, ইয়োনো, ইয়োনো লাইট, ইউপিআই পরিষেবা ব্যবহার করা যাবে না।

এসবিআইয়ের তরফে টুইটারে জানানো হয়েছে, যাতে আরও ভালো ব্যাঙ্কিং পরিষেবা প্রদান করা যায়, সেজন্য ব্যাঙ্কের সঙ্গে কিছুটা অসুবিধা সইতে হবে গ্রাহকদের। সঙ্গে বলা হয়েছে, '১১ ডিসেম্বর ১১ টা ৩০ মিনিট থেকে ১২ ডিসেম্বর (রবিবার) ভোর ৪ টে ৩০ মিনিট পর্যন্ত আমরা প্রযুক্তিগত উন্নতির কাজ করা হবে। সেই সময় ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, ইয়োনো (YONO), ইয়োনো লাইট (YONO Lite), ইয়োনো বিজনেস (YONO Business), ইউপিআই পরিষেবা ব্যবহার করা যাবে না। অসুবিধার জন্য আমরা দুঃখিত।'

এমনিতেই মাঝেমধ্যেই কয়েক ঘণ্টার জন্য স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং/YONO/YONO Lite/UPI পরিষেবা বন্ধ থাকে। চলতি বছরও একাধিকবার ভারতের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং সংক্রান্ত পরিষেবা কয়েক ঘণ্টা বন্ধ রাখা হয়েছিল। সেই সময়সীমার পর আবারও স্বাভাবিক হয়ে যায় পরিষেবা। 

তারইমধ্যে সম্প্রতি আইআইটি-বম্বের একটি রিপোর্টে দাবি করা করা হয়, প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনার আওতায় ইউপিআই বা রুপে লেনদেনের জন্য ২০১৭ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ‘বেসিক সেভিংস ব্যাঙ্ক ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট’ থাকা গ্রাহকদের থেকে লেনদেনপিছু ১৭.৭ টাকা কেটেছিল এসবিআই। মোট ১৪ কোটি লেনদেনের জন্য ২২৯৪ কোটি টাকা সংগ্রহ করা হয়েছিল। মাসিক চারটি লেনদেনের সীমা পেরিয়ে গেলেই সেই টাকা কাটা হত। কিন্তু সরকারের নির্দেশে মাত্র ৯০ কোটি টাকা ফিরিয়ে দিয়েছে এসবিআই। ১৬৪ কোটি টাকা ফেরত দেওয়া হয়নি। সেই টাকা এসবিআই আটকে রেখেছে বলে রিপোর্টে দাবি করা হয়। যদিও এসবিআইয়ের তরফে দাবি করা হয়, ডিজিটাল লেনদেনের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের থেকে যে চার্জ নেওয়া হচ্ছে, তা ফিরিয়ে দেওয়া হয়নি বলে একটি প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে। এই বিষয়ে পুরোপুরি কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশ এবং নির্দিষ্ট নির্দেশিকা মেনে কাজ করা হচ্ছে বলে দাবি করেছে এসবিআই। ভারতের সবথেকে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের তরফে দাবি করা হযেছে, কেন্দ্রের ‘আর্থিক অন্তর্ভুক্তি’ কর্মসূচির প্রথম সারিতেই থেকেছে এসবিআই।

বন্ধ করুন