বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > '১০ লাখ দেখে ফাঁদে পা নয়', প্রতারকদের হাত থেকে গ্রাহকদের বাঁচাতে বার্তা SBI-এর
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট

'১০ লাখ দেখে ফাঁদে পা নয়', প্রতারকদের হাত থেকে গ্রাহকদের বাঁচাতে বার্তা SBI-এর

  • প্রতারকদের পাঠানো বিভিন্ন বার্তায় ক্লিক করে হ্যাক হয় ডিভাইস। আর এতেই গ্রাহকের সব তথ্য চলে যায় জালিয়াতদের হাতে।

বহু ক্ষেত্রেই আর্থিক প্রলোভনে এসেই নিজের সর্বস্ব খোয়াতে হয় ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের। প্রতারকদের পাঠানো বিভিন্ন বার্তায় ক্লিক করে হ্যাক হয় ডিভাইস। আর এতেই গ্রাহকের সব তথ্য চলে যায় জালিয়াতদের হাতে। যাতে এই ধরনের ভুল গ্রাহকরা না করেন, তার জন্য ফের একবার বার্তা দিল স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।

গণেশ চতুর্থী উপলক্ষে বার্তা দিয়ে এসবিআই এদিন একটি টুইট করে সকলকে অহেতুক বা বাড়তি লোভে পড়া থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিল। এসবিআই-এর তরফে টুইটে লেখা হয়, কেউ ১০,০০,০০০ টাকার পুরস্কার জিতেছেন বললেই সেই ফাঁদে পা দেবেন না। সাইবার সুরক্ষা পেতে এবার ভগবান গণেশ আপনাদের পথ দেখাবেন।

উল্লেখ্য, এর আগেও একাধিকবার গ্রাহকদের সাইবার প্রতারকদের থেকে রক্ষা করতে গ্রাহকদের সতর্ক করেছে স্টেট ব্যাঙ্ক। অচেনা বা সন্দেহজনক ব্যক্তি বা সংগঠন থেকে মেইল এলে তাতে ক্লিক না করার বার্তা দিয়েছিল এসবিআই। তাছাড়া বিসেষ উপহার বা নগদের প্রলোভবন দেখানো বার্তা থেকে গ্রাহকদের দূরে থাকতে বলেছে এসবিআই। তা না করলে নিজের ব্যক্তিগত ও গোপন তথ্য খোওয়ানোর আশঙ্কা রয়েছে। ব্যাঙ্কের স্পষ্ট বক্তব্য, কেওয়াইসি, ওটিপি, পাসওয়ার্ড বা কার্ডের নম্বর কখনও ফোনে চাওয়া হয় না গ্রাহকদের কাছে।

এদিকে যেকোনও ডিজিটাল লেনদেনের পরই গ্রাহকের রেজিস্টার করা ফোনে এসএমএস আসবে। তা না এলে বা অন্য কোনও বিষয়ে সন্দেহ হলে অবিলম্বে ব্যাঙ্কের কাস্টমার কেয়ারের - ১৮০০১১১১০৯, ৯৪৪৯১১২২১১, ০৮০০২৬৫৯৯৯৯০ নম্বরে ফোন করতে পারেন। এছাড়াও রয়েছে ন্যাশনাল সাইবার ক্রাইম রিপোর্টিং পোর্টালের ১৫৫২৬০ নম্বরে করতে পারেন।

বন্ধ করুন