বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রচারের অনুমতি নিয়ে ত্রিপুরা সরকারকে বিশেষ নির্দেশ আদালতের, স্বস্তি তৃণমূলে
 অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়. তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক
 অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়. তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক

প্রচারের অনুমতি নিয়ে ত্রিপুরা সরকারকে বিশেষ নির্দেশ আদালতের, স্বস্তি তৃণমূলে

  • তৃণমূল ইতিমধ্যেই ত্রিপুরার পুর নির্বাচনকে পাখির চোখ করে ঘুঁটি সাজাতে শুরু করেছে। দলের ৯জনে নেতৃত্বের টিমকেও ত্রিপুরায় পাঠানো হয়েছে।

কোনও রাজনৈতিক দলকেই তাদের প্রচার ও নির্বাচনী অধিকার থেকে বঞ্চিত করে রাখা যাবে না। বৃহস্পতিবার এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। শুধু তাই নয়, আসন্ন পুরসভা নির্বাচনের আগে প্রতিটি রাজনৈতিক দল যাতে শান্তিতে প্রচার করতে পারে তার ব্যবস্থা করার জন্যও ত্রিপুরা সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তৃণমূলের করা পিটিশনের ভিত্তিতে এই নির্দেশ দিয়েছে দেশের শীর্ষ আদালত। রাজ্য সভার সাংসদ সুস্মিতা দেবও এনিয়ে আদালতে আবেদন করেছিলেন। এরপরই আদালতের এই নির্দেশ।

 এদিকে তৃণমূল ইতিমধ্যেই ত্রিপুরার পুর নির্বাচনকে পাখির চোখ করে ঘুঁটি সাজাতে শুরু করেছে। দলের ৯জনে নেতৃত্বের টিমকেও ত্রিপুরায় পাঠানো হয়েছে। একটি কর্পোরেশন, ১৩টি মিউনিসিপ্য়াল কাউন্সিল ও ৬ নগর পঞ্চায়েতের আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার পরিকল্পনা নিয়েছে তৃণমূল। আগামী ২৫শে নভেম্বর ত্রিপুরায় ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

আদালতের আপিল করে তৃণমূল জানিয়েছিল সেই অগস্ট মাস থেকে ত্রিপুরার শাসকদলের নেতৃত্বে সন্ত্রাস চলছে। বর্তমানে সেখানে মিটিং, মিছিল করার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। এদিকে এনিয়ে বিচারপতি ধনঞ্জয় ওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানিয়েছে, যেহেতু নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে সেকারণে রাজ্য সরকার ও পুলিশের উচিৎ শান্তিতে যাতে দলগুলি প্রচার করতে পারে তা নিশ্চিত করা। আবেদনকারীর তরফে অ্যাডভোকেট গোপাল শঙ্করনারায়ণ জানিয়েছিলেন সুস্মিতা দেবের সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের নানাভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এরপর আদালত সংশ্লিষ্ট পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছে তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার জন্য।

 

বন্ধ করুন