ফাইল ছবি  (REUTERS)
ফাইল ছবি (REUTERS)

'দেশে আইনের শাসন আছে না নেই'- প্রাপ্য না চোকানোয় টেলিকম সংস্থাদের সুপ্রিম তিরস্কার, স্টে অর্ডার সরাল কেন্দ্র

মানি পাওয়ারের কথা বলল সুপ্রিম কোর্ট।

নির্দেশ সত্ত্বেও টাকা না দেওয়ায় টেলিকম সংস্থাদের তীব্র তিরস্কার করল সুপ্রিম কোর্ট। একই সঙ্গে কেন্দ্র যেভাবে স্টে অর্ডার দিয়ে সুপ্রিম নির্দেশকে আটকে দিয়েছে, সেটিকেও ছেড়ে কথা বলেনি শীর্ষ আদালত। দেশে আইনের শাসন আছে কি নেই, সেই প্রশ্নও করে সুপ্রিম কোর্ট। এরপরেই তড়ঘড়ি নিজেদের অর্ডার প্রত্যাহার করে নেয় ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকম।

এদিন তিন বিচারপতির বেঞ্চ প্রথম থেকেই একহাত নেয় টেলকো ও কেন্দ্রের। গত বছরের অক্টোবরে সুপ্রিম কোর্ট বলেছিল যে টেলকোদের অদেয় রাজস্ব বাবদ ৯২ হাজার কোটি টাকা দিতে হবে। এই টাকা দিতে গেলে দেউলিয়া হয়ে যাব, সেই কথা বলে এখনও আদালতের নির্দেশ মানেনি টেলকোরা। এতেই ক্ষুব্ধ বিচারপতিরা।

বেঞ্চ বলে যে দেশে হচ্ছেটা কী? কোনও আইনকানুন মানা হবে কিনা. এই প্রশ্নও করেন বিচারপতিরা। ২৩ জানুয়ারির মধ্যে টাকা মেটাতে বলেছিল সুপ্রিম কোর্টে। আদালতের রায় পরিবর্তন করতে আপিল করেছিল টেলকোরা। সেই শুনানির সময়ই ক্ষুব্ধ হয়ে এই প্রতিক্রিয়া দেন বিচারপতিরা। টেলিকম মন্ত্রক যে স্টে অর্ডার দিয়েছিল টাকা দেওয়ার ক্ষেত্রে, সেটাতেও রেগে যান বিচারপতিরা। অরুণ মিশ্র বলেন যে টেলকোরা একটা টাকাও দেয়নি, আপনারা অন্যদিকে অর্ডার স্টে করিয়ে দিচ্ছেন। সুপ্রিম কোর্টের কী কোনও মূল্য নেই, সেই প্রশ্নও তোলেন বিচারপতি। মানি পাওয়ারের ফলে এটি হয়েছে বলে জানান তিনি।

টেলিকম দফতর অর্ডার প্রত্যাহার না করলে, যে অর্ডারটি দিয়েছে তাকে জেলে পাঠানো হবে বলে জানান সুপ্রিম কোর্ট। আদালতের অবমাননা করা হয়েছে বলেও জানান বিচারপতি। এর আগে ১৬ জানুয়ারি টেলকোদের রিভিউ পিটিশন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট।



বন্ধ করুন