বাড়ি > ঘরে বাইরে > বেছে বেছে বৈষম্যমূলক ভাবে চিনের অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে, অভিযোগ বেজিংয়ের
ব্যান হল টিকটিক সহ ৫৯টি অ্যাপ 
ব্যান হল টিকটিক সহ ৫৯টি অ্যাপ 

বেছে বেছে বৈষম্যমূলক ভাবে চিনের অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে, অভিযোগ বেজিংয়ের

কড়া প্রতিক্রিয়া চিনের ভারতের অ্যাপ ব্যানের পর। 

 বেছে বেছে চিনা অ্যাপগুলির সঙ্গে বৈষম্য করা হচ্ছে,  ভারত সরকারের ৫৯টি অ্যাপ ব্যানের সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় জানাল চিন। সোমবার রাতে নিরাপত্তাজনিত কারণে ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত সরকার। 

এই সিদ্ধান্ত চিন অত্যন্ত উদ্বিগ্ন বলে মঙ্গলবার সকালে জানান চিনের বিদেশনমন্ত্রকের মুখপাত্র। তিনি বলেন যে ভারতের দায় আছে আইন মোতাবেক চিন সহ সমস্ত বিদেশি লগ্নির স্বার্থ সুরক্ষা করার। পরে ভারতে নিযুক্ত চিনের রাষ্ট্রদূত শি রং বিস্তারিত একটি বিবৃতি টুইটারে পোস্ট করেন অ্যাপ ব্যান নিয়ে। 

ভারতের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে চিনের দাবি যে বেছে বেছে তাদের দেশের অ্যাপগুলিকে টার্গেট করা হয়েছে বৈষম্য করে। যেই ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে সেগুলি অবাস্তব বলে মনে করে চিন। এটি বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নীতির পরিপন্থী ও জাতীয় সুরক্ষা সংক্রান্ত আইনের অপব্যবহার বলে মনে করে চিন। একই সঙ্গে ন্যায় ও স্বচ্ছ প্রক্রিয়াকে লঙ্ঘন করা হয়েছে বলে অভিযোগ চিনে। 

একই সঙ্গে এই অ্যাপ ব্যান ভারতীয় স্বার্থের পরিপন্থী বলেও মনে করে বেজিং। তাদের বক্তব্য এতে বাজারে প্রতিযোগিতা কমবে। এই অ্যাপে যারা কাজ করতেন তাদের চাকরি যাবে ও যারা কন্টেন্ট ক্রিয়েটার ছিলেন এই অ্যাপের সঙ্গে যুক্ত, তারাও ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে মনে করছে চিন। বেজিংয়ের দাবি ভারতীয় আইন মেনেই কাজ করত এই অ্যাপগুলি। 

ভারত-চিন অর্থনৈতিক সম্পর্কে যে দুই দেশই লাভবান হবে, সেটি নয়াদিল্লিকে মনে করিয়ে দেন শি রং। সেই কারণে তথাকথিত বৈষম্যমূলক নীতি ছেড়ে সব ব্যবসার জন্য উন্মুক্ত দ্বার রাখতে ভারতের কাছে আবেদন করেন তিনি। 

বন্ধ করুন