সিএএ ও এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে দিল্লির শাহিন বাগে অবস্থানে বসেছেন মহিলারা। এখান থেকে বাড়ি পেরার পথেই মারা গিয়েছে ৪ মাসের শিশুটি। ছবি সৌজন্যে পিটিআই।
সিএএ ও এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে দিল্লির শাহিন বাগে অবস্থানে বসেছেন মহিলারা। এখান থেকে বাড়ি পেরার পথেই মারা গিয়েছে ৪ মাসের শিশুটি। ছবি সৌজন্যে পিটিআই।

শাহিনবাগে শিশুমৃত্যুর জেরে কেন্দ্র ও দিল্লি সরকারকে সুপ্রিম নোটিশ

  • মাতৃত্বের প্রতি আমাদের সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা রয়েছে। গুরুত্বের বিচারে শিশুরা সর্বাগ্রে এবং তাদের অবহেলা করা অনুচিত।

চার মাসের শিশুর মৃত্যুর জেরে শাহিনবাগে বিক্ষোভ অবস্থানে শিশুদের অংশগ্রহণ সম্পর্কে কেন্দ্র ও দিল্লি প্রশাসনকে সোমবার নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট।

এ দিন প্রধান বিচারপতি এস এ বোবডের নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ শাহিনবাগে সিএএ-এর বিরুদ্ধে আন্দোলনরত সন্তানহারা মায়ের আইনজীবীকে জানায়, ‘মাতৃত্বের প্রতি আমাদের সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা রয়েছে। গুরুত্বের বিচারে শিশুরা সর্বাগ্রে এবং তাদের অবহেলা করা অনুচিত।’

গত প্রায় দুই মাস যাবত শাহিনবাগে সিএএ-বিরোধী বিক্ষোভ অবস্থানে সম্প্রতি চার মাসের এক শিশুর মৃত্যুর পরে বিষয়টি স্বতঃপ্রণোদিত বিচারের আওতায় আনে শীর্ষ আদালত। গত ৩০ জানুয়ারি শাহিনবাগ থেকে ফেরার পথে ঘুমের মাঝেই মারা যায় শিশুটি।

২০১৯ সালে সাহসিকতার জন্য জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত মুম্বইয়ের ১২ বছরের কিশোরী জেন গুণরতন সদাওয়ার্তের লেখা চিঠির ভিত্তিতে বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দেয় আদালত। চিঠিতে কিশোরী অভিযোগ জানায়, মৃত শিশুটির অধিকার সুরক্ষিত করতে ব্যর্থ হয়েছেন তার বাবা-মা এবং শাহিনবাগে প্রতিবাদ অবস্থানের উদ্যোক্তারা। ঘটনার জেরে গণঅবস্থানে শিশুদের অংশগ্রহণের মতো ‘নিষ্ঠুর’ উদ্যোগ রুখতে প্রয়োজনীয় নির্দেশ জারি করার আবেদনও জানায় গুণরতন।



আরও পড়ুন: শাহিনবাগের অভিযুক্ত যুবক AAP সদস্য, দাবি পুলিশের, BJP-র চক্রান্ত, পালটা কেজরির


এ দিন আদালতে শাহিনবাগের কয়েকজন মহিলা প্রতিবাদীর তরফে আইনজীবীরা স্কুলে শিশুদের বৈষম্য এবং সরকারি শিবিরে তাদের আটক রাখার বিষয়ে আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। কিন্তু এগুলি বর্তমান মামলায় অপ্রাসঙ্গিক বলে মন্তব্য করেন প্রধান বিচারপতি বোবডে।

আইনজীবীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘এটা সিএএ বা এনআরসি সংক্রান্ত মামলা নয়। এখানে এই প্রসঙ্গ তুলে পরিস্থিতি আরও খারাপ করতে পারেন না। অপ্রাসঙ্গিক তর্ক করবেন না।’

এ দিন অন্য একটি মামলায় শাহিনবাগে অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রতিবাদ অবস্থান নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করে শীর্ষ আদালত। সুপ্রিম কোর্টের দুই সদস্যের বেঞ্চ জানায়, সরকারি স্থানে দীর্ঘমেয়াদী অবস্থান চলতে পারে না। তবে এখনই শাহিনবাগ থেকে প্রতিবাদীদের সরানোর আবেদন নাকচ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ১৭ ফেব্রুয়ারি এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে এদিন জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ।

বন্ধ করুন