বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Shashi Tharoor in Congress President Election: গান্ধীদের চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কংগ্রেস সভাপতি পদের জন্য লড়বেন শশী? এল জবাব
শশী থারুর (PTI)

Shashi Tharoor in Congress President Election: গান্ধীদের চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কংগ্রেস সভাপতি পদের জন্য লড়বেন শশী? এল জবাব

  • সম্প্রতি শশী মালায়ালাম দৈনিক 'মাতৃভূমি'-র জন্য একটি প্রতিবেদন লিখেছেন। সেখানে তিনি কংগ্রেস সভাপতি বেছে নেওয়ার জন্য ‘অবাধ ও সুষ্ঠু’ নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছিলেন।

কংগ্রেস সভাপতি পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন শশী থারুর। এই নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই জল্পনা চলছে। এই আবহে মুখ খুললেন শশী থারুর। তবে তাতেও কাটল না ধোঁয়াশা। শশী এদিন বলেন, ‘নির্বাচন লড়া বা না লড়ার বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেইনি।’ শশী আরও বলেন, ‘আশা করছি অনেকেই এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।’ (আরও পড়ুন: ‘...রোল মডেল’, ‘মোদীর দূরদর্শী নেতৃত্বে’র প্রশংসায় পঞ্চমুখ হাসিনা)

উল্লেখ্য, সম্প্রতি শশী মালায়ালাম দৈনিক 'মাতৃভূমি'-র জন্য একটি প্রতিবেদন লিখেছেন। সেখানে তিনি কংগ্রেস সভাপতি বেছে নেওয়ার জন্য ‘অবাধ ও সুষ্ঠু’ নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছেন। তাঁর সেই প্রতিবেদনের পর থেকেই জল্পনা তৈরি হয় তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা নিয়ে। এর আগে তিনি বলেন, ‘আমি কোনও (কংগ্রেস সভাপতি পদের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়ে) মন্তব্য করতে চাই না। আমি আমার প্রবন্ধে যা লিখেছি তা মেনে নিয়েছি। কংগ্রেস পার্টির জন্য এই নির্বাচন ভালো হবে।’

আরও পড়ুন: মোদী-হাসিনা বৈঠকের পর নদীর জল বণ্টন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষর দুই দেশের

এর আগে মাতৃভূমিতে লেখা নিজের প্রতিবেদনে শশী থারুর দাবি জানান, কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যদের নির্বাচনের ঘোষণাও করা উচিত ছিল। এর মাধ্যমে দলের নেতাদের গ্রহণযোগ্যতা বাড়বে বলে মত প্রকাশ করেন তিনি। নিজের প্রতিবেদনে শশী থারুর লিখেছিলেন, ‘কংগ্রেসে ওয়ার্কিং কমিটির অন্তত বারোটি আসনে নির্বাচন করানো দরকার ছিল। সর্বভারতীয় কংগ্রেস কমিটি এবং প্রদেশ কংগ্রেস কমিটিতে প্রতিনিধিদের নির্বাচন এই নেতাদের গ্রহণযোগ্যতা প্রমাণ করত। তবে নতুন করে সভাপতি পদে নির্বাচন করালে কংগ্রেসের পুনরুজ্জীবন ঘটবে।’

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে কংগ্রেসের যে ২৩ বিক্ষুব্ধ নেতা সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখেছিলেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম শশী থারুর। শোনা যাচ্ছে, দলের অন্যান্য নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন শশী থারুর। সম্প্রতি, দলের নানা পদ ছেড়েছেন একাধিক প্রবীণ নেতা। কংগ্রেস ছেড়ে নয়া দল গড়ার বার্তা দিয়েছেন গুলাম নবি আজাদ। এরই মাঝে কয়েক মাসের মধ্যেই দেশের একাধিক রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। এর আগে কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন দেশের রাজনৈতিক ভবিষ্যতের জন্য বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এই আবহে দলের সংস্কারের জন্য ‘লড়াই’ করার ইঙ্গিত দিয়েছেন শশী। যা নিয়ে এখন জল্পনা তুঙ্গে।

বন্ধ করুন