বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Shower Viral Video Probe: ‘স্নানের কোনও ভিডিয়ো মেলেনি, কেউ আত্মহত্যার চেষ্টা করেনি’, চণ্ডীগড়কাণ্ডে দাবি পুলিশের
চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলের ঘটনায় পুলিশি তদন্ত শুরু  (PTI)

Shower Viral Video Probe: ‘স্নানের কোনও ভিডিয়ো মেলেনি, কেউ আত্মহত্যার চেষ্টা করেনি’, চণ্ডীগড়কাণ্ডে দাবি পুলিশের

  • আদৌ কি স্নানের সময় কোনও ছাত্রীর ভিডিয়ো শুট করা হয়েছিল? চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলের ঘটনায় পুলিশি তদন্ত শুরু। 

অভিযোগ উঠেছিল, বাথরুমে ছাত্রীদের স্নানের ভিডিয়ো করে তা ভাইরাল করে দেওয়া হয়েছিল। আরও অভিযোগ উঠেছিল, সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই নাকি ৮ জন ছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এই ঘটনা ঘিরে তুলকালাম পরিস্থিতি চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ে। তবে ঘটনার প্রাথমিক তদন্তের পর মহালির পুলিশ সুপার বিবেক সোনি দাবি করেন, তারা এখনও কোনও ছাত্রীর স্নানের ভিডিয়ো পাননি। পাশাপাশি তাঁর আরও দাবি এই ঘটনার প্রেক্ষিতে কোনও ছাত্রীর আম্তহত্যার চেষ্টার ঘটনা রিপোর্ট করা হয়নি। (আরও পড়ুন: ভাইরাল ৬০ ছাত্রীর স্নানের ভিডিয়ো! তুলকালাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলে)

এদিন সাংবাদিকদের এসপি বিবেক সোনি বলেন, ‘একজন ছাত্রী নাকি কিছু ভিডিয়ো শুট করে তা প্রচার করে দিয়েছে। এই বিষয়ে এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে এবং অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনার সাথে যুক্ত কোনও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। মেডিকেল রেকর্ড অনুযায়ী, কোনও আত্মহত্যার প্রচেষ্টা রিপোর্ট করা হয়নি।’

পুলিশ আধিকারিক আরও বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের তদন্তে আমরা জানতে পেরেছি যে অভিযুক্তের নিজের একটি মাত্র ভিডিও রয়েছে সেই ফোনে। তিনি অন্য কারও ভিডিও রেকর্ড করেননি তাতে। ইলেকট্রনিক ডিভাইস এবং মোবাইল ফোন হেফাজতে নেওয়া হয়েছে এবং তা ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।’

ভোররাত আড়াইটে নাগাদ চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলে তুলকালাম বাঁধে এই ভাইরাল ভিডিয়োর অভিযোগ ঘিরে। জানা গিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলে ৬০ জন ছাত্রীর স্নানের ভিডিয়ো সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। এই ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার ভোররাতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন ছাত্রীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শেষ পর্যন্ত পুলিশকে পৌঁছতে হয় সেখানে। অভিযোগ, হোস্টেলেরই এক ছাত্রী এই সব ভিডিয়ো করে। তারপর শিমলার এক ছেলেকে সেই ভিডিয়ো পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেই ছেলেই নাকি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছাত্রীদের এই স্নানের ভিডিয়ো ভাইরাল করে দেন। অভিযুক্ত মেয়েটির বিরুদ্ধে আইপিসি এবং আইটি আইনের ৩৫৪সি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত ছাত্রী এমবিএ-র প্রথম বর্ষে পড়াশোনা করছে।

 

বন্ধ করুন