বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Pakistan: মডেলিং এবং নাচের নেশা ছাড়তে পারেননি বোন, গুলি করে খুন করলেন দাদা
বোনকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ দাদার বিরুদ্ধে। প্রতীকী ছবি। (HT_PRINT)
বোনকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ দাদার বিরুদ্ধে। প্রতীকী ছবি। (HT_PRINT)

Pakistan: মডেলিং এবং নাচের নেশা ছাড়তে পারেননি বোন, গুলি করে খুন করলেন দাদা

  • সম্প্রতি তার নাচের একটি ভিডিয়ো তার দাদাকে পাঠিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। তা দেখে প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে যান ওই তরুণীর দাদা। জানা গিয়েছে, ইদ উপলক্ষ্যে কিছু দিন আগেই বাড়ি ফিরেছিলেন সিদরা।

বোন মডেলিং করতে ভালোবাসতেন। কিন্তু কিছুতেই তা মেনে নিতে পারেননি দাদা। এ নিয়ে বোনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি আর তার জেরে বোনকে গুলি করে খুন করল দাদা। এ রকমই অনার কিলিংয়ের ঘটনা ঘটল পাকিস্তানের লাহোরের কাছে রেনালা খুর্দ ওকারা নামে একটি গ্রামে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত দাদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মৃতার নাম সিদরা। অভিযুক্ত দাদার নাম হামজা।

পিটিআই সূত্রের খবর, স্থানীয় একটি পোশাক ব্র্যান্ডের মডেলিংয়ের পাশাপাশি থিয়েটারে নাচ করে বেড়াতেন সিদরা। কিন্তু, তার দাদা এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তা মোটেই মেনে নেননি। তারা প্রথম থেকে এর বিরোধিতা করে আসছিলেন এবং একাধিকবার তাকে এসব থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। কিন্তু, তারপরেও মডেলিং এবং নাচের নেশা ছেড়ে থাকতে পারেননি সিদরা। সম্প্রতি তার নাচের একটি ভিডিয়ো তার দাদাকে পাঠিয়ে ছিলেন এক ব্যক্তি। তা দেখে প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে যান ওই তরুণীর দাদা। জানা গিয়েছে, ইদ উপলক্ষ্যে কিছু দিন আগেই বাড়ি ফিরেছিলেন সিদরা। তখনই মডেলিং এবং নাচ বন্ধ করা নিয়ে দাদা এবং বোনের মধ্যে তুমুল বচসা বাঁধে। তারই মধ্যে আচমকা পিস্তল বের করে বোনকে গুলি করেন হামজা। ঘটনায় তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। এর পরে পুলিশ হামজাকে গ্রেফতার করে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও পাকিস্তানের বহু জায়গায় এই ধরনের অনার কিলিংয়ের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৬ সালে পাকিস্তানের বিখ্যাত মডেল এবং সোশ্যাল মিডিয়ার তারকা কান্দিল বালোচ অনার কিলিংয়ের শিকার হয়েছিলেন। সেই ঘটনায় তার দাদাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তার পরে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয় আদালত। এছাড়া পরিবারের অসম্মতিতে বিয়ে করায় পঞ্জাব প্রদেশে একই পরিবারের ৭ জনকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারা হয়েছিল। সব মিলিয়ে পাকিস্তানে এই ধরনের ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে।

বন্ধ করুন