বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বর্ষা আসতেই শুরু ডাইরিয়ার প্রকোপ! ওড়িশায় মৃত্যু হল ৬ জনের
রায়গড়ার জেলা কালেক্টর স্বধা দেব সিং বলেছেন, গত দুই থেকে তিন দিনে কাশিপুর ব্লকের ঝরিয়াসাহি গ্রামে কমপক্ষে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরও ১২ জনকে ডায়রিয়ার আক্রেরমণ করে। প্রতীকী ছবি।

বর্ষা আসতেই শুরু ডাইরিয়ার প্রকোপ! ওড়িশায় মৃত্যু হল ৬ জনের

  • রায়গড়ার জেলা কালেক্টর স্বধা দেব সিং বলেছেন, গত দুই থেকে তিন দিনে কাশিপুর ব্লকের ঝরিয়াসাহি গ্রামে কমপক্ষে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরও ১২ জনকে ডায়রিয়ার আক্রেরমণ করে।

দেবব্রত মোহান্তি

নোংরা জল পান করে ৬ জনের অসুস্থতা ও মৃত্যুর খবরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওড়িশার রায়গড়ের কাশিপুর ব্লকে। সেখানে ১২ জনকে মুহূর্তে ভরতি করা হয় হাসপাতালে। তার আগে ৬ জন মারা যান। জানা গিয়েছে ধরনার নোংরা জল খেয়ে তারা ডাইরিয়া আক্রান্ত হয়ে পড়ে। তারপরই ছড়িয়ে পড়ে রোগ।

রায়গড়ার জেলা কালেক্টর স্বধা দেব সিং বলেছেন, গত দুই থেকে তিন দিনে কাশিপুর ব্লকের ঝরিয়াসাহি গ্রামে কমপক্ষে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরও ১২ জনকে ডায়রিয়ার আক্রেরমণ করে। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি বলছেন, ‘গ্রামবাসীরা সম্ভবত তাদের বাড়ির কাছের নোংরা স্রোতের জল পান করত। তবে তাদের মৃত্যুর সঠিক কারণ আমরা এখনো খুঁজে পাইনি। আমরা সেখানে মেডিকেল টিম পাঠাচ্ছি।’ জেলার কাশিপুর ব্লকের টিকিরি, গোবরিঘাটি, জালাকুড়া, দুদুকাবাহল, বাদামরিভাটা, কাকুদিপদর এবং রাউতঘাটি গ্রামে এই রোগ ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানা গিয়েছে। Odisha:খরস্রোতা নদী দড়ি দিয়ে পার হয়ে এভাবেই রোজ স্কুলে যায় এই পড়ুয়ারা

উল্লেখ্য, এই প্রথম ডাইরিয়ার জেরে মৃত্যুর ঘটনা কাশিপুরে ঘটেনি। এর আগে ২০০৭ সালে, কাশপিউরে কমপক্ষে ৭০ জন লোক ডায়রিয়ায় মারা গিয়েছিল এবং ২০১০ সালে দূষিত পানি পান করে কমপক্ষে ৩০জন মারা গিয়েছিল। প্রশাসনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কাশিপুরে জুলাই ও আগস্ট মাসে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা যায় কারণ লোকেরা সাধারণত চাষের জন্য তাদের ধান ক্ষেতে যান এবং ক্ষেতের নদী, চুয়া, নালা, স্রোত ইত্যাদির জল পান করে যা কলেরা ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সংক্রামিত হন।

 

 

 

বন্ধ করুন