বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Sonia Gandhi Leaves ED Office: ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় ২ ঘণ্টা জের পর ইডি অফিস ছাড়লেন সোনিয়া গান্ধী
সোনিয়া গান্ধী (Hindustan Times)

Sonia Gandhi Leaves ED Office: ন্যাশনাল হেরাল্ড মামলায় ২ ঘণ্টা জের পর ইডি অফিস ছাড়লেন সোনিয়া গান্ধী

  • এদিকে সোনিয়ার ইডি হাজিরার আগে কংগ্রেস কর্মীরা এবং দলের নেতারা দিল্লির রাজপথে বিক্ষোভ দেখান। এদিকে সোনিয়ার হাজিরার আগেই ১৩টি বিরোধী দল যৌথ বিবৃতি দিয়ে মোদী সরকারকে তোপ দাগে।

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বৃহস্পতিবার ন্যাশনাল হেরাল্ড আর্থিক দুর্মীতি মামলায় কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধীকে দুই ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এই মামলায় আজ সোনিয়ার বিবৃতি রেকর্ড করে তদন্তকারী সংস্থা। দু’ঘণ্টা পর সোনিয়ার অনুরোধে জিজ্ঞাসাবাদ আজকের মতো বন্ধ করেন ইডি কর্তারা। আগামী সপ্তাহে আবার সোনিয়াকে ডাকা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। সমন যাচাইকরণ এবং উপস্থিতি পত্রে স্বাক্ষরের মতো কিছু আনুষ্ঠানিকতা শেষ করার পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয় সোনিয়ার। এরপর আড়াইটে নাগাদ তাঁকে যেতে দেওয়া হয়।

এদিকে সোনিয়ার ইডি হাজিরার আগে কংগ্রেস কর্মীরা এবং দলের নেতারা দিল্লির রাজপথে বিক্ষোভ দেখান। এদিকে সোনিয়ার হাজিরার আগেই ১৩টি বিরোধী দল যৌথ বিবৃতি দিয়ে মোদী সরকারকে তোপ দাগে। এরই মাঝে ছেলে রাহুল গান্ধী এবং মেয়ে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সঙ্গে সোনিয়া গান্ধী বেলা ১২টা নাগাদ ইডি অফিসে পৌঁছান।

উল্লেখ্য, ১৯৩৮ সালে জওহরলাল নেহরুর হাত ধরে পথ চলা শুরু ন্যাশনাল হেরাল্ড-এর৷ স্বাধীনতার পর কাগজটি মূলত কংগ্রেসের মুখপত্রে পরিণত হয়৷ পত্রিকাটির প্রকাশক অ্যাসোসিয়েটেড জার্নালস লিমিটেড৷ এর মালিকানা ইয়ং ইন্ডিয়ান প্রাইভেট লিমিটেড৷ ২০০৮ সালে আর্থিক ক্ষতির কারণে ন্যাশনাল হেরাল্ড-এর প্রকাশনা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কংগ্রেস প্রধান সোনিয়া গান্ধি৷ এরপর ২০১১ সালে ইয়ং ইন্ডিয়ান প্রাইভেট লিমিটেড নামক কোম্পানি গঠন করেন তিনি৷ যাঁর ৭৬ শতাংশ অংশীদারি কংগ্রেস সভানেত্রী এবং তাঁর পুত্র রাহুলের৷ এর সূত্র ধরেই ২০১৩ সালে অর্থ তছরুপের অভিযোগ আনেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণিয়াম স্বামী৷ পরে ২০১৫ সালে ইয়ং ইন্ডিয়া একটি অলাভজনক কোম্পানি হওয়ায় এর বিরুদ্ধে তদন্ত বন্ধ করে ইডি৷ বর্তমানে এই মামলায় আগাম জামিন নিয়ে মুক্ত আছেন রাহুল ও সোনিয়া।

বন্ধ করুন