বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অগস্ট থেকে ভারতে শুরু স্পুটনিক-ভি'র উৎপাদন, জুনে আসবে আরও ৫০ লাখ ডোজ
অগস্ট থেকে ভারতে শুরু স্পুটনিক-ভি'র উৎপাদন, জুনে আসবে আরও ৫০ লাখ ডোজ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)
অগস্ট থেকে ভারতে শুরু স্পুটনিক-ভি'র উৎপাদন, জুনে আসবে আরও ৫০ লাখ ডোজ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ব্লুমবার্গ)

অগস্ট থেকে ভারতে শুরু স্পুটনিক-ভি'র উৎপাদন, জুনে আসবে আরও ৫০ লাখ ডোজ

  • শুধু স্পুটনিক-ভি নয়, এক ডোজের স্পুটনিক-লাইটও ভারতে ব্যবহারের অনুমতি মিলবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আগামী অগস্ট থেকে ভারতে শুরু হতে পারে স্পুটনিক-ভি'র উৎপাদন। এমনটাই জানিয়েছেন রাশিয়ায় ভারতের রাষ্ট্রদূত বালা ভেঙ্কটেশ বর্মা। পাশাপাশি সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, জুনের মধ্যে ৫০ লাখ স্পুটনিক-ভি টিকার ডোজ পাবে নয়াদিল্লি।

বর্মা বলেন, ‘স্পুটনিক-ভি'র ১.৫ লাখ এবং ৬০,০০০ ডোজ ভারতে পাঠানো হয়েছে। মে মাসের শেষের মধ্যে একলপ্তে ৩০ লাখ ডোজ পাঠানো হবে। সেগুলি ভারতে ভরতি করা হবে। জুনে তা বেড়ে দাঁড়াবে ৫০ লাখ এবং অগস্ট থেকে ভারতেই স্পুটনিক-ভি'র উৎপাদন শুরু হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।’ 

তিনি জানান, তিন দফায় ভারতে রাশিয়ার করোনা টিকা তৈরি করা হবে। কোন কোন দফায় কীভাবে হবে, সেই ব্যাখ্যা করেছেন বর্মা। তিনি বলেন, ‘ভারতে তিন দফায় তৈরি করা হবে। প্রথমে রাশিয়া থেকে পুরোপুরি তৈরি টিকা পাঠানো হবে। যা ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে। দ্বিতীয় দফায় একলপ্তে অনেক টিকা পাঠাবে আরডিআইএফ (রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড)। তা ব্যবহারের উপযুক্ত হবে। শুধু ভারতে বিভিন্ন বোতলে তা ভরতে হবে। তৃতীয় দফায় একটি ভারতীয় সংস্থাকে (টিকা তৈরির) প্রযুক্তি দেবে রাশিয়া। আর পুরোটাই উৎপাদন করবে ভারতীয় সংস্থা (ডক্টর রেড্ডিজ)। সেই তিন দফা মিলিয়ে ৮৫০ মিলিয়ন ডোজ তৈরি করা হবে।’

তবে শুধু স্পুটনিক-ভি নয়, এক ডোজের স্পুটনিক-লাইটও ভারতে ব্যবহারের অনুমতি মিলবে বলে আশা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার তরফে স্পুটনিক-লাইটেরও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ভারতে নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পাওয়ার প্রক্রিয়া এখনও সম্পূর্ণ হয়নি। একবার অনুমোদন পেয়ে গেলে ভারত এবং রাশিয়ার পারস্পরিক সহযোগিতার অন্যতম অঙ্গ হয়ে উঠবে স্পুটনিক-লাইট।’

বন্ধ করুন