বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মোদীর চাপে আদানিকে বরাত দেয়নি শ্রীলঙ্কা, নিজের ‘মিথ্যা’ স্বীকার শীর্ষকর্তার
ছবি: টুইটার (Twitter)

মোদীর চাপে আদানিকে বরাত দেয়নি শ্রীলঙ্কা, নিজের ‘মিথ্যা’ স্বীকার শীর্ষকর্তার

  • ফার্দিনান্দো বলেছিলেন, রাষ্ট্রপতি রাজাপক্ষ বলেছিলেন যে বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্পটি ভারতের বিলিয়নিয়ার গৌতম আদানির আদানি গ্রুপকে দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী মোদী তাঁকে এমনটা করার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

আদানি গ্রুপকে বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প দিতে হবে। রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপক্ষকে নাকি এমন দাবি করেই প্রভাবিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সংসদীয় প্যানেলের সামনে এমন দাবি করেছিলেন শ্রীলঙ্কার এক শীর্ষ আধিকারিক। তবে সোমবার নিজের বক্তব্য ফিরিয়ে নিয়ে পদত্যাগ করলেন তিনি।

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বিদ্যুৎ সংস্থা সিলন ইলেকট্রিসিটি বোর্ডের (CEB) চেয়ারম্যান এমএমসি ফার্দিনান্দোর পদত্যাগ গৃহীত হয়েছে, সোমবার এমনটাই জানান শ্রীলঙ্কার জ্বালানি মন্ত্রী কাঞ্চনা উইজেসেকারা।

শুক্রবার পাবলিক এন্টারপ্রাইজেস (COPE) সংক্রান্ত কমিটির শুনানির সময় ফার্দিনান্দো দাবি করেছিলেন, রাষ্ট্রপতি রাজাপক্ষ গত বছরের নভেম্বরে একটি বৈঠকের পরে তাঁকে তলব করেছিলেন। বলেছিলেন যে বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্পটি ভারতের বিলিয়নিয়ার গৌতম আদানির আদানি গ্রুপকে দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী মোদী তাঁকে এমনটা করার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

তবে রাষ্ট্রপতি রাজাপক্ষ শনিবার সংসদীয় প্যানেলের সামনে ফার্দিনান্দোর দাবি অস্বীকার করেন। রাজাপক্ষ টুইট করেন, 'আমি স্পষ্টভাবে কোনও নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা সংস্থাকে এই প্রকল্পটি দেওয়ার অনুমোদন অস্বীকার করছি।'

রবিবার, ফার্দিনান্দো পার্লামেন্টে COPE চেয়ারের অধ্যাপক চারিথা হেরাথকে লেখেন যে, তিনি তাঁর মন্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন। বলেন যে, চাপের মুখে এমন করেছিলেন তিনি। তাঁর উক্তি প্রত্যাহার করার জন্য তিনি রাষ্ট্রপতি বা ভারতীয় হাই কমিশনের দ্বারা প্রভাবিত হননি, সেটাও স্পষ্ট করে দেন তিনি।

বিষয়টি নিয়ে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

মান্নারে আদানি গ্রুপের ৫০০ মেগাওয়াট বায়ু বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে ঘিরে এই বিতর্কের সূত্রপাত। সিইবি ইঞ্জিনিয়াররা ১৯৮৯ সালের সিইবি আইনে সরকারের সংশোধনী নিয়ে ধর্মঘটের হুমকি দিয়েছিলেন।

প্রধান বিরোধী দল সামাগী জন বালাওয়েগয়ার নেতা সাজিথ প্রেমাদাসা মিথ্যা বলার জন্য ফার্দিনান্দোকে সংসদীয় বিশেষাধিকার কমিটির মাধ্যমে বিচারের হুমকি দিয়েছেন।

বন্ধ করুন