বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চলে গেলেন পরমাণু গবেষণার বিখ্যাত বিজ্ঞানী শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায়
চলে গেলেন পরমাণু গবেষণার বিখ্যাত বিজ্ঞানী শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায় :  ছবি (‌সৌজন্য ফেসবুক)‌
চলে গেলেন পরমাণু গবেষণার বিখ্যাত বিজ্ঞানী শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায় :  ছবি (‌সৌজন্য ফেসবুক)‌

চলে গেলেন পরমাণু গবেষণার বিখ্যাত বিজ্ঞানী শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায়

  • রবিবার নবি মুম্বইয়ের তাঁর বাসভবনেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন তিনি।জানা গিয়েছে, গত মাসে তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। পরে করোনাকে জয় করে সুস্থও হয়ে ওঠেন তিনি।

চলে গেলেন পরমাণু গবেষণার বিখ্যাত বিজ্ঞানী শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায়। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। রবিবার নবি মুম্বইয়ের তাঁর বাসভবনেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন তিনি।জানা গিয়েছে, গত মাসে তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। পরে করোনাকে জয় করে সুস্থও হয়ে ওঠেন তিনি।

পরমাণু শক্তি কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান শ্রীকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েছে গোটা বিজ্ঞানী মহল। এদিন শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায়ের মৃত্যুর খবরে গভীর শোকপ্রকাশ করে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

তিনি নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে লেখেন, ‘ভারতীয় বিজ্ঞান, বিশেষত পরমাণু শক্তি বিষয়ে গবেষণায় তাঁর অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি ছিলেন একজন প্রকৃত গুরু ও প্রতিষ্ঠান নির্মাতা। আচমকাই তিনি প্রয়াত হয়েছেন। তাঁর মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। পরিবারকে সমবেদনা জানাই। ওম শান্তি’।

শ্রীকুমারবাবুর পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, এদিন বাড়িতে আচমকাই হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। ২০১০ থেকে ২০১২ সালে পর্যন্ত পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন এই কৃতী বিজ্ঞানী। এ ছাড়াও তিনি ভাবা অ্যাটোমিক রিসার্চ সেন্টারের অধিকর্তা হিসাবেও ছ’‌বছর দায়িত্ব সামলেছিলেন। খড়গপুর আইআইটির প্রাক্তন ছাত্র ছিলেন শ্রীকুমার বন্দোপাধ্যায়। সেখান থেকে বি টেক পাশ করার পর ভাবা পরমাণু কেন্দ্রের চাকরিতে যোগদান করেন। তারপর ধাপে ধাপে তাঁর পদোন্নতিও হয়। ১৯৮৯ সালে বিজ্ঞান গবেষণায় তাঁর অসামান্য অবদানের জন্য তিনি শান্তি স্বরূপ ভাটনগর পুরস্কার পেয়েছিলেন।

২০০৫ সালে শ্রীকুমারবাবু ভাবা পরমাণু গবেষণা কেন্দ্রের অধিকর্তা হিসাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। সেবছরই তিনি পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হন।

 

বন্ধ করুন