বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'অত্যন্ত কঠিন সময়', ভারতের কাছে ধূলিসাৎ হয়ে বললেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক

'অত্যন্ত কঠিন সময়', ভারতের কাছে ধূলিসাৎ হয়ে বললেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক

'অত্যন্ত কঠিন সময়', ভারতের কাছে ধূলিসাৎ হয়ে বললেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক। ছবি টুইটার

ম্যাচ শেষে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক জানিয়েছেন 'আজকের দিনটা আমাদের জন্য অত্যন্ত কঠিন দিন ছিল। ফাইনালের মতো মঞ্চে একেবারেই ভালো ব্যাটিংয়ের প্রদর্শন আমরা করতে পারিনি। আজকে অত্যন্ত হতাশ আমি।

শুভব্রত মুখার্জি: মহিলা এশিয়া কাপ ক্রিকেটে দীর্ঘদিন ধরে অপ্রতিরোধ্য ভারতীয় দল। শনিবার বাংলাদেশের সিলেটে অনুষ্ঠিত ফাইনালে সেই কথাটাই আরও একবার টের পেল শ্রীলঙ্কা দল। ফাইনালে কার্যত চামারি আতাপাত্তুর নেতৃত্বাধীন শ্রীলঙ্কা দলকে উড়িয়ে দিল ভারত। ম্যাচ শেষে শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক চামারি আতাপাত্তুর অকপট স্বীকারোক্তি দলের জন্য আজকের দিনটা অত্যন্ত কঠিন ছিল। ওয়ানডে হোক কিংবা টি-২০ ফর্ম্যাট দুই ক্ষেত্রেই ভারতীয় দলের একচ্ছত্র আধিপত্য বর্তমান। মিতালি রাজ হোন বা হরমনপ্রীত কৌর এশিয়া কাপে ভারতীয় দলের আধিপত্য ক্ষুন্ন হয়নি কখনো। ২০১২ সাল থেকে শুরু হওয়া এশিয়া কাপে ভারতীয় দল মাত্র একটিবার ফাইনাল হেরেছে। ২০১৮ সালের সেই ফাইনাল বাদ দিয়ে সবক্ষেত্রেই সাফল্যের মুখ দেখেছে ভারতীয় দল।

ম্যাচ শেষে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক জানিয়েছেন 'আজকের দিনটা আমাদের জন্য অত্যন্ত কঠিন দিন ছিল। ফাইনালের মতো মঞ্চে একেবারেই ভালো ব্যাটিংয়ের প্রদর্শন আমরা করতে পারিনি। আজকে অত্যন্ত হতাশ আমি। পরের বছর আমাদের সামনে টি-২০ বিশ্বকাপ রয়েছে। এই টুর্নামেন্ট থেকে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। আমি আমার বোলিং বিভাগ নিয়ে খুশি। আমাদের বেশ কিছু তরুণ ক্রিকেটার রয়েছে। আমরা আশা করব ভবিষ্যতে তারা সমষ্টিগতভাবে ব্যাটিং ইউনিট হিসেবে ভালো ফল করবে।আমাদের দলে খুব বেশি অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেই। আমি আশা করব তরুণী ক্রিকেটাররা ভবিষ্যতে ভালো ফল করবে।'

এদিন প্রথমে ব্যাট করে শ্রীলঙ্কা দল নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৬৫ রান করতে সমর্থ হয়। ব্যাটিং বিপর্যয়ের সম্মুখীন হন তারা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১৮ রান করেন ইনোকা রানাউইরা।১৩ রান করেন ওসাডি রনসিংহে। এছাড়া আর কোনও ক্রিকেটার দুই অঙ্কের রান পাননি। অধিনায়ক চামারি আতাপাত্তু মাত্র ৬ রান করেন। মাত্র ৮ রানেই পড়ে যায় শ্রীলঙ্কা দলের প্রথম উইকেট। দলীয় ৯ রানে পরপর তিনটি উইকেট হারায় তারা। রেণুকা পরপর তিন বলে তিনটি উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিক করেন। প্যাভিলিয়নে ফিরে যান হর্ষিতা সামারাউইক্রমা,অনুষ্কা সঞ্জীবনী এবং হাসিনি পেরেরা। এরপর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেননি লঙ্কানরা। মাত্র ৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন নেন রেণুকা সিং। ২টি করে উইকেট নেন রাজেশ্বরী গায়রকোয়াড় এবং স্নেহ রানা।

জয়ের জন্য রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ৮.৩ ওভারেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারতীয় দল। মাত্র দুই উইকেট হারিয়ে শিরোপা জয় নিশ্চিত করে ভারতীয় দল। ২৫ বলে ৫১ রানের অনবদ্য একটি অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে বড় জয় এনে দেন স্মৃতি মন্ধানা। শ্রীলঙ্কার হয়ে ১টি করে উইকেট নেন ইনোকা রানাউইরা এবং কাভিশা দিলহারি।

বন্ধ করুন