বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাড়ল স্টাইপেন্ড, ৭ দিন পর মধ্যপ্রদেশে হরতাল তুললেন ৩ হাজার জুনিয়র ডাক্তার
মধ্যপ্রদেশে হরতাল তুললেন ৩ হাজার জুনিয়র ডাক্তার (‌ফাইল চিত্র)‌ (HT_PRINT)
মধ্যপ্রদেশে হরতাল তুললেন ৩ হাজার জুনিয়র ডাক্তার (‌ফাইল চিত্র)‌ (HT_PRINT)

বাড়ল স্টাইপেন্ড, ৭ দিন পর মধ্যপ্রদেশে হরতাল তুললেন ৩ হাজার জুনিয়র ডাক্তার

  • ডাক্তারদের আন্দোলনের চাপে শেষ পর্যন্ত স্টাইপেন্ড বাড়ানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল মধ্যপ্রদেশ সরকার। এর ফলে ৭ দিন পর হরতাল তুলে নিলেন ডাক্তাররা।

শেষ পর্যন্ত জুনিয়র ডাক্তারদের কাছে মাথা নত করতে বাধ্য হল মধ্যপ্রদেশ সরকার। ডাক্তারদের আন্দোলনের চাপে শেষ পর্যন্ত স্টাইপেন্ড বাড়ানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল মধ্যপ্রদেশ সরকার। জানা গিয়েছে, জুনিয়র ডাক্তারদের স্টাইপেন্ড ১৭ শতাংশ বাড়ানো হবে। এই আবহে ৭ দিন পর হরতাল তুলে নিলেন ডাক্তাররা।

রাজ্য সরকারের ঘোষণার পরই হরতাল তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে জুনিয়র ডাক্তার অ্যাসোসিয়েশন। এর আগে জুনিয়র ডাক্তার অ্যাসোসিয়েশনের নেতাদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেন মেডিক্যাল শিক্ষা দফতরের মন্ত্রী বিশ্বাস সারাঙ। এই বিষয়ে জুনিয়র ডাক্তার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অরবিন্দ মেনন বলেন, 'রাজ্য সরকার আমাদের সকল দাবি মেনে নিয়েছে। তাই আমরা আমাদের হরতাল তুলে নিচ্ছি।'

এদিকে এই প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারের মন্ত্রী সারাঙ বলেন, 'আমরা বহুদিন থেকেই জুনিয়র জাক্তারদের সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছিলাম। এরপর জুনিয়র ডাক্তরদের যথাযথ যুক্তি মেনে নিয়েছি। শীঘঅরই তাঁদের স্টাইপেন্ড বাড়ানোর চূড়ান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে।' জানা গিয়েছে পিজি এবং এমবিবিএস সহ মোট ৩০০০ জন ডাক্তার এই হরতালে যোগ দিয়েছিলেন। যার জেরে মধ্যপ্রদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার উপর চাপ পড়ছিল।

গত ৩১ মে থেকে হরতালে ছিল জুনিয়র জাক্তাররা। জুনিয়র ডাক্তার অ্যাসোসিয়েশনের দাবি ছিল, জুনিয়র জাক্তারদের জন্য আলাদা শয্যা রিজার্ভ করা থাকুক। পাশাপাশি স্টাইপেন্ড বাড়ানোর দাবি তো ছিলই। এরপর মামলা গড়ায় মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্টে। এরপর উচ্চ আদালত ডাক্তারদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কাজে যোগ দিতে বললেও নিজেদের জেদে অনড় ছিলেন ডাক্তাররা।

বন্ধ করুন